২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১ ১:১৩:৩০
logo
logo banner
HeadLine
২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১ : পরীক্ষা ১৭৫১৫, শনাক্ত ৮১৮, শনাক্তের হার ৪.৫৯ শতাংশ , মৃত্যু ২৫, সুস্থ ৯৬৫ জন * জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৭৬তম অধিবেশনে প্রধানমন্ত্রীর ভাষণের পূর্ণ বিবরণ * কোভিড-মুক্ত বিশ্ব গড়তে জাতিসংঘে সার্বজনীন, সাশ্রয়ী টিকা দাবি প্রধানমন্ত্রীর * বাংলাদেশ ও শেখ হাসিনার নেতৃত্বের প্রশংসায় জাতিসংঘ মহাসচিব * ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১: চট্টগ্রামে ৩ শতাংশ হারে শনাক্ত ৪৬, মৃত ৩ জন * ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১ : পরীক্ষা ২৭১৪১, শনাক্ত ১২৩৩, শনাক্তের হার ৪.৫৪ শতাংশ , মৃত্যু ৩১, সুস্থ ১৪১৩ জন * ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১: চট্টগ্রামে ২.০২ শতাংশ হারে শনাক্ত ২৬, মৃত ৩ জন * 'অতি জরুরি' ভিত্তিতে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন জোরদারের দাবি প্রধানমন্ত্রীর * ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১ : পরীক্ষা ২৪৮২০, শনাক্ত ১১৪৪, শনাক্তের হার ৪.৬১ শতাংশ , মৃত্যু ২৪, সুস্থ ১৬৫৩ জন * ২২ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত দেশে টিকা দেয়া হয়েছে ৩ কোটি ৯০ লাখ ৩১ হাজার ৮৯৬ ডোজ * কোভিড-১৯ ভ্যাকসিনকে সার্বজনীন গণপণ্য ঘোষণার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর * ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১: চট্টগ্রামে ৩.২৭ শতাংশ হারে শনাক্ত ৫৪, মৃত ২ জন * ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১ : পরীক্ষা ২৮৭৩৬, শনাক্ত ১৩৭৬, শনাক্তের হার ৪.৭৯ শতাংশ , মৃত্যু ৩৬, সুস্থ ১৪২৭ জন * আইসিটি,নবায়নযোগ্য জ্বালানি ও ব্লু ইকনমিতে মার্কিন বিনিয়োগ আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর * ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১: চট্টগ্রামে ২.৭৪ শতাংশ হারে শনাক্ত ৪৮, মৃত ১ জন *
     22,2021 Wednesday at 12:17:08 Share

ঘটনাক্রম: আফগানিস্তানজুড়ে তালেবানের তড়িৎ অগ্রগতি

ঘটনাক্রম: আফগানিস্তানজুড়ে তালেবানের তড়িৎ অগ্রগতি

আফগানিস্তানের প্রায় সবগুলো গুরুত্বপূর্ণ শহরের নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার পর তালেবান বিদ্রোহীরা এখন রাজধানী কাবুলে প্রবেশ করছে আর রক্তপাত এড়াতে ‘শান্তিপূর্ণ ক্ষমতা হস্তান্তরের’ ঘোষণা এসেছে সরকারের তরফ থেকে।

রোববারের এসব ঘটনার আগে সাম্প্রতিক মাসগুলোতে বেশ কিছু বড় ধরনের মাইলফলক পার হয়ে এসেছে এই বিদ্রোহী গোষ্ঠীটি। এ সময় বেশ কয়েকটি প্রাণঘাতী হামলাও হয়েছে, যার কয়েকটি জন্য তালেবানকে ও অন্যগুলোর জন্য ইসলামিক স্টেটসহ (আইএস) বেশ কয়েকটি কট্টরপন্থি গোষ্ঠীকে দায়ী করা হয়েছে।

এর মধ্যে যুক্তরাষ্ট্র ও তার মিত্রদের মধ্যস্থতায় তালেবান ও আফগান সরকারের মধ্যে রাজনৈতিক সমঝোতার মাধ্যমে শান্তি চুক্তি করারও উদ্যোগ নেওয়া হয়েছিল, কিন্তু সেই প্রচেষ্টা কোনো উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি অর্জন করতে ব্যর্থ হয়।

১৪ এপ্রিল: ১ মে আফগানিস্তান থেকে যুক্তরাষ্ট্রের সেনা প্রত্যাহার শুরু হয়ে ১১ সেপ্টেম্বর শেষ হবে বলে ঘোষণা প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের। তার এ ঘোষণার মাধ্যমে যুক্তরাষ্ট্রের দীর্ঘতম লড়াই শেষ হয়। তালেবানের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের হওয়া সমঝোতায় অনুযায়ী ১ মে-র মধ্যে দেশটি থেকে সব মার্কিন সৈন্য প্রত্যাহারের কথা ছিল, পরে সেই সময়টিকেই কিছুটা বাড়িয়ে নেন বাইডেন।

৪ মে: দক্ষিণাঞ্চলীয় হেলমান্দ প্রদেশে আফগান বাহিনীগুলো ওপর বড় ধরনের হামলা শুরু করে তালেবান। আরও অন্তত ছয়টি প্রদেশেও এ ধরনের হামলা শুরু করে তারা।

১১ মে: সারা দেশে সহিংসতা বৃদ্ধির মধ্যে তালেবান রাজধানী কাবুলের পার্শ্ববর্তী নেরখ জেলা দখল করে নেয়।

৭ জুন: ঊর্ধ্বতন সরকারি কর্মকর্তারা জানান তীব্র লড়াইয়ের মধ্যে ২৪ ঘণ্টায় দেড়শরও বেশি আফগান সৈন্য নিহত হয়েছেন। তারা আরও জানান, দেশের ৩৪টি প্রদেশের মধ্যে ২৬টিতে লড়াই ছড়িয়ে পড়েছে।

২২ জুন: দক্ষিণে তাদের ঐতিহ্যগত শক্তিকেন্দ্র থেকে বহু দূরে দেশটির উত্তরাঞ্চলে ধারাবাহিক হামলা শুরু করে তালেবান যোদ্ধারা। আফগানিস্তানে নিযুক্ত জাতিসংঘের দূত জানান, ৩৭০টি জেলার মধ্যে ৫০টিরও বেশির নিয়ন্ত্রণ নিয়েছে তালেবান। 

২ জুলাই: আফগানিস্তানে তাদের প্রধান ঘাঁটি বাগরাম বিমান ঘাঁটি ছেড়ে চুপচাপ চলে যায় যুক্তরাষ্ট্রের সৈন্যরা। এর মাধ্যমে মার্কিন বাহিনীর আফগান যুদ্ধে কার্যকরভাবে জড়িত থাকার অবসান ঘটে।

৫ জুলাই: তালেবান জানায়, তারা অগাস্টের মধ্যে আফগান সরকারের কাছে একটি লিখিত শান্তি প্রস্তাব উত্থাপন করতে পারে।

২১ জুলাই: যুক্তরাষ্ট্রের জ্যেষ্ঠ জেনারেল জানান, আফগানিস্তানের প্রায় অর্ধেক জেলা তালেবান বিদ্রোহীদের নিয়ন্ত্রণে চলে গেছে। এতে তালেবানের অগ্রগতির মাত্রা ও দ্রুত অগ্রসর হওয়ার বিষয়টি লক্ষ্যনীয় হয়ে ওঠে।

২৫ জুলাই: তালেবান হামলার জবাবে বিমান হামলা আরও জোরদার করে ‘আসছে সপ্তাহগুলোতেও’ আফগান সৈন্যদের সাহায্য করার মাধ্যমে তাদের প্রতি সমর্থন অব্যাহত রাখার প্রত্যয় জানায় যুক্তরাষ্ট্র।

২৬ জুলাই: জাতিসংঘ জানায়, চলতি বছর তীব্র লড়াইয়ের মধ্যে মে ও জুন মাসে প্রায় দুই হাজার ৪০০ আফগান বেসামরিক হতাহত হয়েছেন; ২০০৯ সাল থেকে রেকর্ড রাখা শুরু হওয়ার পর থেকে এ দুই মাসে এটিই হতাহতের সর্বোচ্চ সংখ্যা।

৬ অগাস্ট: কয়েক বছরের মধ্যে প্রথম প্রাদেশিক রাজধানী হিসেবে তালেবানের হাতে জারাঞ্জের পতন। পরবর্তী কয়েকদিনে তারা অনেকগুলো প্রাদেশিক রাজধানীর নিয়ন্ত্রণ নেয় যার মধ্যে উত্তরের কুন্দুজ অন্যতম।

১৩ অগাস্ট: একদিনে চারটি প্রাদেশিক রাজধানীর পতন। এর মধ্যে দেশটির দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর কান্দাহার এবং পশ্চিমাঞ্চলের গুরুত্বপূর্ণ শহর হেরাতও আছে। তালেবানের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে নেতৃত্ব দেওয়া অভিজ্ঞ কমান্ডার মোহাম্মদ ইসমাইল খানকে আটক করে বিদ্রোহীরা।  

১৪ অগাস্ট: তালেবান উত্তরাঞ্চলের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ শহর মাজার-ই-শরিফ এবং তেমন কোনো বাধা ছাড়াই কাবুলের ৭০ কিলোমিটার দক্ষিণে লোগার প্রদেশের রাজধানী পুল-ই-আলম দখল করে নেয়। কাবুল থেকে তাদের বেসামরিক নাগরিকদের সরিয়ে আনতে সহায়তা করার জন্য সেখানে আরও সৈন্য পাঠায় যুক্তরাষ্ট্র। পরবর্তী পদক্ষেপ কী হতে পারে তা নিয়ে স্থানীয় নেতা ও আন্তর্জাতিক অংশীদারদের সঙ্গে পরামর্শ করছেন বলে জানান আফগান প্রেসিডেন্ট আশরাফ গনি।

১৫ অগাস্ট: তালেবান কোনো লড়াই ছাড়াই পূর্বাঞ্চলের গুরুত্বপূর্ণ শহর জালালাবাদ দখল করে নিয়ে কাবুলকে কার্যত ঘিরে ফেলে। দিনের পরবর্তী সময় তারা রাজধানী কাবুলে প্রবেশ করতে শুরু করে। যুক্তরাষ্ট্র হেলিকপ্টার যোগে তাদের দূতাবাস থেকে কূটনীতিকদের সরিয়ে আনে। তালেবান যোদ্ধারা কাবুলে প্রবেশের পর রক্তপাত এড়াতে ‘শান্তিপূর্ণ ক্ষমতা হস্তান্তরের’ ঘোষণা আসে সরকারের তরফ থেকে।

User Comments

  • আন্তর্জাতিক