২৬ নভেম্বর ২০২০ ২৩:৫৭:০৪
logo
logo banner
HeadLine
মেধা, জ্ঞান, বুদ্ধি ও মননকে দেশের কাজে লাগাতে সরকারি কর্মচারিদের প্রতি আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর * ২৬ নভেম্বার : দেশে করোনায় মৃতের সংখ্যা সাড়ে ৬ হাজার ছাড়িয়েছে, সুস্থ ৩,৭১,৪৫৩ জন * সব শ্রেণিতে ভর্তি এবার লটারিতে * বিদায় দিয়েগো আর্মান্দো ম্যারাডোনা * ২৫ নভেম্বার : দেশে শনাক্ত আরও ২১৫৬, মারা গেছেন ৩৯ জন, সুস্থ ২,৩০২ * অন্ধ্র ও তামিলনাড়ুর দিকে আগাচ্ছে বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় 'নিভার' * ১০ হাজার ৭শ' কোটি টাকার ৭টি প্রকল্প একনেকে অনুমোদন * ২৪ নভেম্বার : দেশে করোনা সংক্রমণ সাড়ে ৪ লাখ ছাড়িয়েছে, সুস্থ ৩,৬৬,৮৭৭ * বাধ্যতামূলক মাস্ক ব্যবহারে আরো কঠোর হতে পদক্ষেপ নিচ্ছে সরকার * ২৩ নভেম্বার : দেশে শনাক্ত আরও ২৪১৯, মারা গেছেন ২৮, সুস্থ ২১৮৩ জন * ২৫ পৌরসভার নির্বাচন ২৮ ডিসেম্বর * মূর্তি বা ভাস্কর্য মানেই শিরকের উপকরণ নয়: হাফেজ মাওলানা জিয়াউল হাসান * ২২ নভেম্বার : দেশে আজ শনাক্ত ২০৬০, মারা গেছেন ৩৮, সুস্থ ২০৭৬ জন * অক্সফোর্ডের গবেষণা : ছয় মাসের মধ্যে দ্বিতীয়বার সংক্রমণের সম্ভাবনা নেই * বসলো পদ্মাসেতুর ৩৮তম স্প্যান , দৃশ্যমান ৫৭০০ মিটার *
     21,2020 Saturday at 18:14:36 Share

এসো জেগে উঠি

এসো জেগে উঠি

------- প্রকৌশলী শামছুল আরেফিন শাকিল * বর্তমান ঘুণেধরা এ সমাজের রন্দ্রে-রন্দ্রে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা হাজারো অসংগতি,অনিয়ম, জুলুম-নিপীড়নের সাথে আমাদের নিত্য কষ্টকর সহবাস ! যাবতীয় অসত্য, অসুন্দর ও অনিয়ম আজ নিয়মে পরিণত হয়েছে ! যে যার মত চলছে ! সমাজ সংসারে নীতি নিয়মের তোয়াক্কা না করে সবাই নিজেকে নিয়ে মহা ব্যাস্ত ! সমাজে বিদ্যমান অসত্য ও অসুন্দরের বিরুদ্ধে কথা বলার, অন্যায়ের প্রতিবাদ করার মানুষ দিনদিন কমছে ! মানুষের চরম 'নৈতিক অবক্ষয়' বর্তমান সমাজে তীব্র অশান্তি ও অসন্তোষ সৃষ্টির অন্যতম প্রধান কারন এবং প্রগতির পথের অন্তরায়। এসো, মানুষের ভিড়ে বসবাস করে নৈতিক শিক্ষার আলোয় আলোকিত হয়ে প্রতিবাদী সাহসী মানুষ হিসাবে মাথা উঁচু করে বাঁচি ! মানুষ মহান সৃষ্টিকর্তার শ্রেষ্ঠ প্রাণী । এটা যেমন সত্য, ঠিক তেমনি এ মানুষ সৃষ্টির নিকৃষ্ট প্রাণীতে পরিণত হয় তাঁর হীন কর্মকাণ্ডের কারনে । যাবতীয় ভয় ও সংকোচ আজ সমাজের চোখের উপর ছানি হিসাবে কাজ করছে ! সমাজে যাবতীয় অনিয়মের বিরুদ্ধে, সত্য সুন্দর সাহস নিয়ে আমাদের রুখে দাঁড়াতে হবে। সমাজের চোখের যাবতীয় ছানি ছিন্ন-বিচ্ছিন্ন করে আমাদের আলো ফিরিয়ে আনতে হবে। বিবেকের সুপ্ত চেতনা গুলো শাণিত করে জাগিয়ে তুলতে হবে। ভয়ের বিষণ্ণ দিবা নিদ্রা থেকে সময়ের ডাকে জাগতে হবে । স্রষ্টার সেরা সৃষ্টি হিসাবে নিজেকে তুলে ধরতে হবে বিশ্ব সমাজের বুকে । জেগে উঠ, সব অলসতা সব সংকোচ ঝেড়ে ফেলে উঠে দাঁড়াও । কান পেতে শুনো , পাখপাখালিরা স্রষ্টার গুনগান গাইছে ! এ যেন আর্ত মানবতার পক্ষে জেগে ওঠা এমন এক ধূমকেতু, যা একে একে পুড়িয়ে দেয় অশান্তি অসুন্দর সৃষ্টিকারী মানুষের আদলে থাকা ইবলিস বা শয়তানদের সব অপশক্তি । জাতি হিসাবে, মানুষ হিসাবে গর্ব করার মত আমাদের আছে অজেয় অতীত গৌরব ইতিহাস ! প্রতিবাদের বিপ্লবী প্রেরনার আলোয় জ্বলে উঠার মত আমাদের সদা সর্বদা পথ দেখায় ইতিহাসের সেই সব সোনালী বাতিঘর । বিপ্লবী আলোকিত চেতনা হৃদয়ে ধারন করে উঠে দাঁড়াও । তোমরা কি কেউ জেগে নেই ? দ্যাখো, কি রকম পথ ভুলে যাচ্ছে নদী, অরণ্য হয়ে যাচ্ছে বিরাণ ! বসত ভিটে হারিয়ে বাড়ছে উদবাস্তু ! তুমি শুনতে কি পাও , বঞ্চিত-শোষিত, ক্ষুদিত-নিপীড়িত মানুষের আর্তনাদ ? মানুষের মগজ হয়ে যাচ্ছে যন্ত্র বিবেক ! চলছে বিবেকের রমরমা বিকিকিনি তোমরা কি টের পাচ্ছনা সেসব ! তোমরা কি অঘোরেই ঘুমাবে ? জাগরণের ডাক তোমারা কি শুনতে পাওনা ? ওঠো জেগে ওঠো এবার ৫২ জেগে ওঠো । ৬৯ জেগে ওঠো। ৭১ জেগে ওঠো। ৮৭ ও ৯০ জেগে ওঠো । জাগো ও জাগাও বাঙালী বিবেক জাগিয়ে তুল তোমার ভেতরের প্রতিবাদী শুদ্ধ মানুষটিকে । একচোখা সমাজের বিবেকের জালে আটকে থাকে বিক্ষিপ্ত অধিকার। শোষিতের রক্ত ভেজা মাটি গন্ধ ছড়ায় " বেঁচে থাকার লড়াই". এসো সাহসী যোদ্ধা আরেকটি বার ফিরে যায় সৈনিক জীবনে, অস্তিত্ব নিংড়ে বোধের জাগরণে জেগে উঠি আরেকটি বার। যাবতীয় ঘৃণা ও ভয়কে কর জয়, ব্যর্থতা আর নয়। এবার সত্যিকারের মানুষ হিসাবে সুন্দর ভাবে বাঁচার অধিকার আদায় করে নাও। বাঁচাও তোমার মাটি'কে । বাঁচাও তোমার অস্তিত্বকে । এসো জীবন যোদ্ধা আবার সংঘবদ্ধ হই। আমাদের নিশানা থাকুক চতুর শত্রু'র বুক, ছিঁড়ে ফেলুক সব অসত্যে অসুন্দরের হৃদপিণ্ড । যাবতীয় প্রাকৃতিক ও সামাজিক দুর্যোগ, আমাদের বিপন্ন করতে চেয়েছে। চোখ রাঙ্গিয়েছে বারবার , বিপন্ন সে সময়ে আমরা পরস্পর থেকে দূরে সরে থাকেনি । আমদের শিরদাঁড়া উঁচু ছিল । তখন আমাদের ছিল না পতঙ্গ-পতন ! এখন কেন আমরা মেরুদণ্ডহীন ? বোধহীন প্রাণীর মত আচরণ আর কত ? ইতিহাস সাক্ষ্য দেয়- আমাদের রক্তক্ষরণের মধ্যে দিয়েও রক্তের প্রবহমানতা আন্তঃনদী হয়ে জেগেছিল ! এসো জেগে উঠি - বীতরাগ থেকে নিঃস্পৃহতা ভেঙে । এসো জেগে উঠি - দ্বিধাহীনতা থেকে অকুণ্ঠচিত্তে গীতি-নৃত্যে । এসো জেগে উঠি - মায়ামুগ্ধ থেকে নিজের কোকিল সূরে । এসো জেগে উঠি - মনস্তাপ থেকে ধ্যানমগ্ন হয়ে । এসো জেগে উঠি - ভয়গ্রস্ত থেকে দুঃসাহসে জেগে। এসো জেগে উঠি - শোকবিহ্বল থেকে প্রাণপ্রাচুর্য নিয়ে। জাগরণের এ ডাক কাহারো কুম্ভকর্ণ গুহরে হয়তো পৌঁছবে না কোনদিন। জাগরণের এ আকুতি হয়তো ছুঁয়ে যাবে না কোন অনুভূতিহীন যান্ত্রিক হৃদয়। তাই বলে কি, জেগে উঠার আহ্বান থেমে থাকবে ?

User Comments

  • কিশলয়