১২ ডিসেম্বর ২০১৯ ৩:৪৬:০৪
logo
logo banner
HeadLine
রাখাইনে গণহত্যা : আইসিজেতে বিচারের শুনানি শুরু * ১৬ ডিসেম্বর থেকে রাষ্ট্রের সর্বস্তরে 'জয় বাংলা' জাতীয় স্লোগান হওয়া উচিত : হাইকোর্ট * আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা করা হবে, অপরাধীকে শাস্তি পেতেই হবে * ইভিনিং কোর্স পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর সার্বিক শিক্ষার পরিবেশ বিঘ্নিত করছে : রাষ্ট্রপতি * রাষ্ট্রপতির ভাষণের খসড়া মন্ত্রিসভায় অনুমোদন * নারী ও শিশু নির্যাতন রোধে জনগণকে সতর্ক থাকার আহ্বান জানালেন প্রধানমন্ত্রী * নারীদের পর পুরুষ দলও এসএ গেমস ক্রিকেটে স্বর্ণ জিতলো * প্রত্যেক টিআইএনধারীকে রিটার্ন দাখিলে বাধ্য করা হবে * আগামী দিনের আওয়ামী লীগ * রোহিঙ্গা ক্যাম্পে কাঁটাতারের বেড়া নির্মাণ কাজ শুরু করেছে সেনাবাহিনী * চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামীলীগের নতুন নেতৃত্বে সালাম-আতাউর * ৬ ডিসেম্বার, ১৯৭১ : 'বাংলাদেশ স্বাধীন' - ভারত * মেরিটাইম উচ্চশিক্ষার প্রয়োজনীয়তা * বছরের প্রথম দিনই চার কোটি ৩০ লাখ শিক্ষার্থীর হাতে তুলে দেয়া হবে ৩৫ কোটি বই * বাংলাদেশ-ভারত যৌথ কমান্ড : ৩ ডিসেম্বর, ১৯৭১ * মুক্তিযোদ্ধাদের অসচ্ছলতা রাষ্ট্রের জন্য লজ্জার: হাইকোর্ট * স্পেন সফর শেষে ঢাকার পথে প্রধানমন্ত্রী * ব্যর্থ হলে শিশুরা ক্ষমা করবে না, বিশ্বনেতাদের হাসিনা * কপ-২৫ সম্মেলন ও বাংলাদেশ * মাদ্রিদে শুরু হলো জলবায়ু সম্মেলন কপ-২৫, যোগ দিচ্ছেন শেখ হাসিনা * দুর্নীতি, সন্ত্রাস ও মাদকের বিরুদ্ধে অভিযান অব্যাহত থাকবে - প্রধানমন্ত্রী * চলতি মাসে একাধিক শৈত্যপ্রবাহের সম্ভাবনা * অনলাইন সংবাদ মাধ্যমের নিবন্ধন শুরু আগামী সপ্তাহে: তথ্যমন্ত্রী * বাড়ি ভাড়া নির্ধারণ নিয়ে হাইকোর্টের রুল * 'অবৈধভাবে উপার্জিত অর্থ দিয়ে বিরিয়ানি-পোলাও খাওয়ার চেয়ে সাদাসিধে জীবনযাপন করা অনেক অনেক সম্মানের - প্রধানমন্ত্রী * রোহিঙ্গা ইস্যুতে রিয়াদ সবসময় বাংলাদেশের পাশে থাকবে * বিশ্বব্যাপী উদযাপন হবে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী * সিএমপি কমিশনারের কাছে ফেইসবুকেও অভিযোগ জানানো যাবে * হ‌লি আর্টিজানে হামলা মামলায় ৮ আসামীর ৭ জনের মৃত্যুদণ্ড * ইতিহাসের বিরুদ্ধে যুদ্ধযাত্রা *
     18,2017 Thursday at 07:49:54 Share

চাঁদাবাজি ও একক প্রভাব বিস্তারের জেরে সন্দ্বীপে এক শীর্ষ সন্ত্রাসী খুন

চাঁদাবাজি ও একক প্রভাব বিস্তারের জেরে সন্দ্বীপে এক শীর্ষ সন্ত্রাসী খুন

চাঁদাবাজি ও একক প্রভাব বিস্তারের জেরে সন্দ্বীপে উপ দলীয় কোন্দলে নিজ গ্রপের সন্ত্রাসীদের গুলি ও ধারালো অস্ত্রের আঘাতে ঘটনাস্থলেই যুবলীগ কর্মী বাবলু (৩০) খুন হয়।  আহত হয় আরও ৪ সন্ত্রাসী । মঙ্গলবার রাত সাড়ে এগারটায় সন্দ্বীপ পৌরসভার তেগবাজের গো সাঁকো এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত বাবলু সন্দ্বীপ পৌরসভার ৪ নং ওয়ার্ডের জয়নাল আবেদীনের পুত্র। সে পৌরসভা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক বলে দাবী করেছে তার পরিবার। ঘটনায় আহতদের মধ্যে রয়েছেন পৌর এলাকার ৩ নং ওয়ার্ডের রাজিব (২০), ও ৪ নং ওয়ার্ডের আবেদ (২৩),করিম (২১) ও শাকিল (২০)।


আহতদের মধ্যে রাজিবকে জরুরি চিকিৎসার জন্য চট্টগ্রামে প্রেরণ করা হয়েছে। চোখের পাশে গুলিবিদ্ধ হওয়ায় তার অবস্থা সংকটাপন্ন বলে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন। এ হত্যাকান্ডের জন্য বাবলুর স্বজনরা তার মামা রাসেলকে দায়ী করেছেন। সহকারি পুলিশ সুপার (সীতাকুণ্ড) রেজাউর রহমান রেজা জানান এটি কোন রাজনৈতিক বিষয় নয়, এলাকায় চাঁদাবাজি ও একক প্রভাব বিস্তারের জন্য এ খুনের ঘটনা ঘটেছে। প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ সূত্র জানায়, মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১১ টার দিকে তালুকদার মার্কেট থেকে মোটর সাইকেল যোগে বাড়ি ফেরার পথে তেজবাগের সাঁকোর কাছে পৌঁছলে সংঘবদ্ধ একটি দল তার ওপর এলোপাথাড়ি সশস্ত্র হামলা চালায়। মোটর সাইকেলে থাকা তার অপর ৩ সহযোগী আহত অবস্থায় খালের পানিতে ঝাঁপ দিয়ে রক্ষা পেলেও বাবলু ঘটনাস্থলেই নিহত হন। এসময় নিহত বাবলুর মোটর সাইকেলটি সন্ত্রাসীরা পুড়িয়ে দেয় এবং তাকে খালের পানিতে ফেলে চলে যায়।  খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে অনেক খোঁজাখুঁজির পরও বাবলুর লাশ উদ্ধার করতে পারেনি। সকালে এলাকার মানুষের সহযোগিতায় খাল থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়।  বাবলুর খালতো ভাই সোহেল রানা মেম্বার বাবলুর মা ও বোনের উদ্ধৃতি দিয়ে জানান, রাসেলের নেতৃত্বে সন্ত্রাসীরা পরিকল্পিতভাবে হামলা চালিয়ে বাবলুকে খুন করেছে। বুধবার ময়না তদন্তের পর বিকেল ৫ টায় জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে তাঁকে দাফন করা হয়। জানা গেছে, এলাকায় চাঁদাবাজি ও আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে বেশ কিছুদিন ধরে মামা রাসেল ও ভাগিনা বাবলুর মধ্যে বিরোধ চলছিল।


সন্দ্বীপ থানার ওসি মো. শামছুল ইসলাম জানান, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে, নিহতের স্ত্রী বাদী হয়ে মামলা করছে।

User Comments

  • সন্দ্বীপ প্রতিদিন