১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ৮:৪৩:০৬
logo
logo banner
HeadLine
মানুষের সেবা করার ব্রত নিয়েই কাজ করে যাচ্ছি - প্রধানমন্ত্রী * জনগণের আস্থায় যেন ফাটল না ধরে, সজাগ থাকতে হবে * কাল রাজশাহী যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী * এসএমই খাতে ঋণ ও অন্যান্য সুবিধা বাড়ছে * আওয়ামীলীগে শুদ্ধি অভিযান, দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গকারী দুই শতাধিক নেতাকে পাঠানো হচ্ছে শোকজ * আমরা কৃষিকেও গুরুত্ব দেই, আবার শিল্পকেও গুরুত্ব দেই - শেখ হাসিনা * বেপরোয়া রোহিঙ্গারা, প্রশাসনিক এ্যাকশন শুরু * স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠানের উদ্বৃত্ত অর্থ সরকারী কোষাগারে জমা দিতে হবে * সরকারের মানবিকতাকে দুর্বলতা ভাবা উচিত নয় * 'বাকশাল হলে বাংলাদেশ আগেই বিশ্ব দরবারে মর্যাদার আসনে থাকতো' - প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা * আসামে চূড়ান্ত নাগরিকত্ব তালিকা থেকে বাদ পড়ল ১৯ লাখ * অপকর্মে লিপ্ত থাকায় রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে ৪১ এনজিও প্রত্যাহার * জটিল হয়ে উঠছে রোহিঙ্গা সমস্যা * দেশের প্রতিটি গ্রামকে পরিকল্পিতভাবে সাজাতে হবে - প্রধানমন্ত্রী * ৫ হাজার ৪৯৪ কোটি টাকার ১২টি প্রকল্প একনেকে অনুমোদন * বিমান দুর্ঘটনায় মারা গেলে ক্ষতিপূরণ দেড় কোটি টাকা * আইভি রহমানের মৃত্যুবার্ষিকীর মিলাদ মাহফিলে অংশ নিলেন প্রধানমন্ত্রী * বেপরোয়া রোহিঙ্গারা, পুলিশের সাথে বন্দুকযুদ্ধে নিহত ২ * ২ বছরে রোহিঙ্গাদের জন্য বাংলাদেশের ব্যয় ৭২ হাজার কোটি টাকা! * আবারও ভেস্তে গেল রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়া * গ্রেনেড হামলায় খালেদার মদদ ছিল,মৃত্যু ভয়ে আমি কখনই ভীত ছিলাম না, এখনও নই * নারকীয় গ্রেনেড হামলার ১৫তম বার্ষিকী আজ, আওয়ামীলীগকে নেতৃত্বশূন্য করতেই এ হামলা * ২২ আগস্ট থেকে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন শুরু * ২৪ ঘণ্টায় ভর্তি ১,৬১৫ জন, কমছে ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা * জাতিসংঘ সদর দপ্তরে প্রথমবারের মতো পালিত হলো জাতীয় শোক দিবস * ডেঙ্গু দমন নিয়ে অসন্তোষ হাইকোর্ট * সারাদেশে ছড়িয়ে পড়েছে ডেঙ্গু * ডেঙ্গুর কার্যকর ওষুধ ছিটাতে স্বাস্থ্যমন্ত্রী ও দুই মেয়রকে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ , নাগরিকদেরকে তাদের বাড়িঘর পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখার আহ্বানও জানিয়েছেন তিনি * সরকারী হাসপাতেলে বিনামূল্যে, বেসরকারীতে ডেঙ্গু পরীক্ষার ফি বেঁধে দিয়েছে সরকার * ডেঙ্গু জ্বর: প্রতিরোধের উপায় *
     17,2018 Saturday at 08:46:36 Share

সকালের নাস্তায় পান্তা ভাত

সকালের নাস্তায় পান্তা ভাত

অধ্যাপক নইম কাদের :: গ্রাম বাংলার ঐতিহ্য পান্তা ভাত। গ্রামে জন্মেছে, গ্রামে বড় হয়েছে এমন প্রতিটি মানুষ পান্তা ভাতের সাথে পরিচিত। এক সময় পান্তা ভাত গ্রামের অবহেলিত ও দরিদ্র জনগোষ্ঠীর সকালের খাবার হিসেবে বিবেচিত হলেও স্বাস্থ্য সুরক্ষায় পান্তা ভাতের ভূমিকা বিষয়ে চিকিৎসা বিজ্ঞানের গবেষণায় চোখ বড় হয়ে যাবার মত তথ্য বেরিয়ে এসেছে। পুষ্টিবিজ্ঞানীরা বলেছেন– সাধারণ ভাতের তুলনায় পান্তা ভাত হাজার গুণ বেশি পুষ্টিসমৃদ্ধ।


পান্তা ভাত পুরোটাই শর্করা সমৃদ্ধ খাবার। শত শত বছর ধরে বাংলাদেশ সহ দক্ষিণ ভারতের মানুষ বিশেষ করে দরিদ্র শ্রেণির মানুষ পান্তা ভাত খেতে অভ্যস্ত। তামিল ভাষায় পান্তা ভাতকে বলে পাঝিয়া সাধম (বাসি ভাত), তেলেগু ভাষায় সাধেন্নাম(ঠাণ্ডা ভাত), সংস্কৃতে বলে কাঞ্জিকা।


রাতে রান্না করা ভাত সবাই খাওয়া শেষ করে যদি কিছু রয়ে যায়, পরদিন সকালে খাওয়ার জন্য তা পানিতে ভিজিয়ে রেখে সংরক্ষণ করা হয়। পানিতে ভিজিয়ে রাখা হয় বলেই এর নাম পান্তা ভাত। দরিদ্র জনগোষ্ঠী পান্তা ভাত খান কাঁচা মরিচ ও লবণ মিশিয়ে। যাদের কিছুটা সামর্থ্য আছে তাঁরা সরিষার তেলের সাথে আলু ভর্তা, বেগুন ভর্তা, সুটকি যোগ করেন। আমি গ্রামে বড় হয়েছি। ছোট বেলায় আমার দাদী, নানী এবং আমার মাকেও দেখেছি রাতের রান্নায় চাউল কিছুটা বাড়িয়ে দিতেন, যাতে সকালে পান্তা ভাত খাওয়া যায়। এর মাধ্যমে গ্রাম বাংলায় মধ্যবিত্ত পরিবার পরিচালনায় একটি সুষ্ঠু পরিকল্পনার চমৎকার দিক ফুটে ওঠে। যেমন সকালে আর রান্না করা লাগে না। এতে সময় ও শ্রম দুটোই বেঁচে যায়। অপব্যয় হয় না।


পান্তা ভাতের পুষ্টিগুণ : পান্তাভাত পুরোটাই শর্করা সমৃদ্ধ খাবার। পান্তা ভাতে খাদ্য ক্যালরি অনেক বেশি। চাল ভেদে এক কাপ ভাতে ২০০ থেকে ২৪২ ক্যালরি পর্যন্ত পাওয় যায়।


সম্প্রতি আসাম কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল গবেষক বৈজ্ঞানিক গবেষণায় প্রমাণ করেছেন যে, প্রতি ১০০ গ্রাম পান্তা ভাতে আয়রন ৭৩.৯১মিলিগ্রাম, স্বাভাবিক ভাতে থাকে মাত্র ৩.৪ মিলিগ্রাম। ১০০গ্রাম পান্তাভাতে ক্যালসিয়ামের পরিমাণ ৮৫০ মিলিগ্রাম, সাধারণ ভাতে ২১ মিলিগ্রাম। পান্তা ভাতে পটাশিয়াম ৮৩৯ মিলিগ্রাম, সাধারণ ভাতে ৩৫ মিলিগ্রাম। অপরদিকে পান্তা ভাতে সোডিয়াম কমে হয় ৩০৩মিলিগ্রাম, সাধারণ ভাতে সোডিয়াম ৪৭৫ মিলিগ্রাম। পান্তা ভাতে ভিটামিন বি–৬, ভিটামিন বি– ১২ পর্যাপ্ত পরিমাণে থাকে।


পান্তা ভাত শরীরে পানিশূন্যতা রোধ করে, তাপের ভারসাম্য রক্ষা করে, পানির অভাব মেটায়। গরমে হিটস্ট্রোক থেকে রক্ষা করে। পেটের পীড়া ভাল হয়,কোষ্ঠবদ্ধতা দূর হয়, গ্যাস্ট্রিক কমায়। মানবদেহের উপকারী বহু ব্যাক্টেরিয়া পান্তা ভাতের মধ্যে বেড়ে ওঠে। যার ফলে খাদ্য সহজে হজম হয়।


গবেষণায় দেখা গেছে, ভাত পানিতে ভিজিয়ে রাখলে বিভিন্ন গাজনকারী ব্যাক্টেরিয়া গাজন প্রক্রিয়ায় শর্করা ভেঙে ইথানল ও ল্যাকটিক অ্যাসিড তৈরি করে। এর ফলে পান্তায় অন্ধত্ব বেড়ে যায়, এবং পচনকারী ও ক্ষতিকর অন্যান্য ব্যাক্টেরিয়া, ছাত্রাক ভাতকে নষ্ট করতে পারে না।


আমেরিকান নিউট্রিশন অ্যাসোসিয়েশন এর গবেষণায় দেখা গেছে ভাত পানিতে ভিজিয়ে রাখলে পাকস্থলি প্যানক্রিয়াটিক অ্যামাইলেজসহ কিছু এনজাইমের কার্যকারিতা বহুগুণ বেড়ে যায়। জটিল শর্করাগুলো সহজে হজম হয়। পান্তা ভাতে শরীরে বেশি শক্তি পাওয় যায়, ক্লান্তি দূর হয়,শরীর হাল্কা লাগে। এলার্জি জনিত সমস্যা দূর হয়, ত্বক ভাল থাকে। হার্ট সুস্থ থাকে। শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি পায়।


বাস্তবতায় দেখা যায়, গ্রামে শ্রমজীবী মানুষ যারা সকালে পান্তা ভাত খেয়ে দীর্ঘক্ষণ পরিশ্রম করতে পারেন, শহরে যারা রুটি–পরটা, চা বিস্কট, পাউরুটি খায়,তারা সে পরিমাণ পরিশ্রম করতে পারে না।


আধুনিক শহুরে জীবনে যারা ১লা বৈশাখে ইলিশ মাছ দিয়ে পান্তা ভাত খান, তাদের সাথে আমার দেখা গ্রামের সেই পান্তা ভাতের কোন তুলনা চলে না। গ্রামের কৃষিজীবী মানুষ দল বেঁধে জমির আইলে বসে লবণ কাঁচা মরিচ মিশিয়ে পান্তা ভাত খান ক্ষুধা নিবারণের জন্য, শরীরে শক্তি সঞ্চয় করে পরিশ্রম করার জন্য। বিলাসিতার সুযোগ সেখানে নেই।


যারা বলেন পান্তা ভাত বাঙালি সংস্কৃতির অংশ ও ঐতিহ্য। জানি না তারা তাদের বাসায় এই সংস্কৃতি ও ঐতিহ্য কতটুকু লালন করেন। তবে গ্রাম বাংলার শ্রমজীবী মানুষ সংস্কৃতি কী, ঐতিহ্য কী এসব বুঝেন না। তারা বুঝেন পান্তা ভাত তাদের ক্ষুধা নিবারণ করে, পান্তা ভাত তাঁদের শরীরে শক্তি যোগায়।


সতর্কতা :


পান্তা ভাত খাওয়ার সময় সাথে কাঁচা লবণ বেশি না মেশালেই ভাল। ডায়াবেটিস রোগী ও অতিরিক্ত বয়ষ্কদের জন্য কিছুটা ক্ষতিকর। আধুনিক জীবনে কি শহর,কি নগর, সর্বত্র পান্তা ভাতের জায়গা দখল করেছে ফাস্টফুড। ফাস্টফুড যতদ্রুত বিদায় করা যায় ততই মঙ্গল। (দৈনিক আজাদীতে প্রকাশিত)।

User Comments

  • আরো