২০ মার্চ ২০১৯ ১৯:৪৮:৫৩
logo
logo banner
HeadLine
মাথাপিছু আয় বেড়ে ১৯০৯ ডলার * আগামী শিক্ষাবর্ষ থেকে তৃতীয় শ্রেণি পর্যন্ত সকল পরীক্ষা তুলে দেওয়ার নির্দেশ * পদ্মাসেতুর রোডওয়েতে স্ল্যাব বসানোর কাজ শুরু, ২১ মার্চ বসছে নবম স্প্যান * ওবায়দুল কাদেরের বাইপাস সার্জারি শুরু, দোয়া প্রার্থনা * নিউজিল্যান্ডের পর অস্ট্রেলিয়া ভ্রমণেও সতর্কতা জারি করল বাংলাদেশ * বাকশাল ছিলো সর্বোত্তম পন্থা, বাকশাল থাকলে নির্বাচন নিয়ে প্রশ্ন উঠতো না - প্রধানমন্ত্রী * নিউ জিল্যান্ডে ভ্রমণ সতর্কতা জারি করেছে বাংলাদেশ * নির্বাচন শেষে ফেরার পথে বাঘাইছড়িতে গুলিতে প্রিজাইডিং অফিসারসহ নিহত ৬ * '৩০ সেকেন্ড এদিক-ওদিক হলেই আমাদের লাশ দেশে ফিরতো' * বাংলাদেশের বিপ্লব, স্বাধীনতা সংগ্রাম এবং জাতির পিতার নেতৃত্ব * যেখানে জনক তুমি মৃত্যুঞ্জয়ী * বঙ্গবন্ধুর জন্মদিনে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা * বাঙালির একমাত্র মহানায়ক * ক্রাইস্টচার্চে হামলায় রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শোক এবং নিন্দা, সারাদেশে নিরাপত্তা জোরদার * ক্রাইস্টচার্চে হামলায় ৩ বাংলাদেশীসহ নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৪৯ * বিশ্বজুড়ে ফেইসবুক ব্যবহারে সমস্যা হচ্ছে * একদিনে চার রকম কথা বললেন নুর * রোহিঙ্গাদের কোথায় রাখা হবে তা বাংলাদেশের নিজস্ব বিষয় * শিক্ষার জন্য শিশুদের অতিরিক্ত চাপ দেওয়া উচিত নয়: প্রধানমন্ত্রী * ওবায়দুল কাদেরের অবস্থার আরও উন্নতি, আইসিইউ থেকে নেয়া হয়ছে কেবিনে * ডাকসু নির্বাচন : ভিপি নুর, জিএস রাব্বানী * সিইসির খন্ডিত বক্তব্য নিয়ে বিতর্ক করা উচিত নয় - মাহবুব-উল আলম হানিফ * প্রথম ধাপের উপজেলা নির্বাচন: আ.লীগ ৫৫, অন্যান্য ২৩, স্থগিত ৯ * আহমদ শফীকে নিয়ে মেননের বক্তব্য একপাঞ্জ চাইলেন কাজী ফিরোজ রশীদ * ডাকসু নির্বাচন কাল: একনজরে প্যানেল পরিচিতি * আত্মত্যাগ ছাড়া কোনো কিছু অর্জন সম্ভব না : প্রধানমন্ত্রী * লাইফটাইম কন্ট্রিবিউশন ফর উইমেন এম্পাওয়ারমেন্ট পদক পেলেন শেখ হাসিনা * চট্টগ্রাম ও কক্সবাজার ঘিরে উন্নয়ন মহাযজ্ঞ, খুলে যাচ্ছে বিনিয়োগের অফুরান দুয়ার * ৩৫ বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ চেয়ে সৌদির সাথে বিদ্যুত, জ্বালানি ও জনশক্তিসহ কয়েকটি এবং সমঝোতা স্মারক সই * কৃত্রিম সাপোর্ট ছাড়াই স্বাভাবিকভাবে কাজ করছে ওবায়দুল কাদেরের হৃদপিন্ড *
     30,2018 Thursday at 08:21:40 Share

পাবনার সেই নারী সাংবাদিক খুনের সাথে সাবেক শশুর জড়িত থাকার অভিযোগ

পাবনার সেই নারী সাংবাদিক খুনের সাথে সাবেক শশুর জড়িত থাকার অভিযোগ

সন্ত্রাসীদের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে নিহত নারী সাংবাদিক সুবর্ণা নদীর ময়নাতদন্ত বুধবার পাবনা জেনারেল হাসপাতালে সম্পন্ন হয়েছে। এরপর বাদ আছর এ্যাডওয়ার্ড কলেজ মাঠে জানাজা শেষে বালিয়া হালট কবরস্থানে তার লাশ দাফন করা হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে সাংবাদিক নদীর সাবেক শ্বশুর আবুল হোসেনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। মঙ্গলবার রাতে বাড়ির সামনে কুপিয়ে নারী সাংবাদিককে হত্যার ঘটনায় সাংবাদিকসহ বিভিন্ন মহলে ক্ষোভ ও প্রতিবাদের ঝড় বইছে। বুধবার দুপুরে বিক্ষুব্ধ সাংবাদিকরা আব্দুল হামিদ সড়কে মানববন্ধনসহ সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার দাবিতে ৪৮ ঘণ্টার আল্টিমেটাম দিয়েছে। অন্যথায় সাংবাদিক সমাজ বৃহত্তর আন্দোলনের কর্মসূচী ঘোষণার হুমকি দিয়েছে।


এদিকে নিহত সাংবাদিক সুবর্ণা নদীর বোন চম্পা খাতুন দাবি করেছেন সুবর্ণার দায়ের করা নারী ও শিশু নির্যাতন আইনের মামলায় পরাজয় জেনেই তার সাবেক শ্বশুর আবুল হোসেন ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী দিয়ে এ হত্যাকান্ড ঘটিয়েছে। চম্পা খাতুন আরও জানান, ২০১৬ সালের ৬ জুন শিল্পপতি আবুল হোসেনের ছেলে রাজিব হোসেনের সঙ্গে ৫ লাখ ১ টাকা দেনমোহরে নদীর বিয়ে হয়। ২০১৭ সালের ৩১ মে যৌতুক দাবিতে তাকে বাড়ি থেকে বের করে দেয়া হয়। পরে তালাকনামা পাঠানো হয়। ২০১৭ সালের ৪ জুন সুবর্ণা পাবনা সদর থানায় নারী ও শিশু- যৌতুক আইনে স্বামী, শাশুড়ি ও শ্বশুরকে আসামি করে মামলা দায়ের করে। মামলা নং-৮। মামলা করার পর থেকেই শ্বশুর-শাশুড়ি ও স্বামী তাকে মামলা তুলে নিতে নানাভাবে হুমকি দেয়। এর আগে ২০১৭ সালের ২২ জুলাই পাবনা সংবাদপত্র পরিষদ কার্যালয়ে সুবর্ণা সংবাদ সম্মেলন করে স্বামী- শ্বশুরের হাত থেকে বাঁচতে আইন প্রয়োগকারী সংস্থার সহযোগিতা কামনা করেন।


পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, সুবর্ণা নদী শহরের রাধানগর মহল্লায় আলিয়া মাদ্রাসার গলিতে ভাড়া বাসায় মা ও একমাত্র শিশু কন্যা নিয়ে বসবাস করতেন। মঙ্গলবার রাত ১০টার দিকে প্রেসক্লাব সড়কের রানা শপিং কমপ্লেক্স থেকে তার অফিসে কাজ শেষে বাসায় ফেরার পথে বাসার সামনে আগে থেকে ওঁৎপেতে থাকা দুষ্কৃতকারীরা সুবর্ণা নদীর পেটে, মাথা ও ঘাড়ে অতর্কিত ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করে। এ সময় তার চিৎকারে বাসা থেকে মা ও মেয়ে এবং আশপাশের লোকজন এগিয়ে এলে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। পরে এলাকাবাসী তাকে উদ্ধার করে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক সুবর্ণা নদীকে মৃত ঘোষণা করেন। খবর পেয়ে রাতেই পাবনা প্রেসক্লাব ও পাবনা রিপোর্টার্স ইউনিটির নেতৃবৃন্দসহ সাংবাদিকরা হাসপাতালে ছুটে যান। পাবনার অতিরিক্ত সুপার গৌতম কুমার বিশ্বাসসহ জেলা পুলিশ প্রশাসনের উর্ধতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।


পাবনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওবায়দুল হক জানান, নিহত সুবর্ণা নদীর মা মোছাঃ মর্জিনা খাতুন বাদী হয়ে বুধবার ৩ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরও ৪/৫ জনকে আসামি করে পাবনা সদর থানায় মামলা দায়ের করেছেন। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নারী সাংবাদিক সুবর্ণা নদীর সাবেক শ্বশুর শহরের ধনাঢ্য ব্যবসায়ী আবুল হোসেনকে আটক করা হয়েছে। তিনি আরও বলেন, তাৎক্ষণিকভাবে এ হত্যাকান্ডের প্রকৃত কারণ উদ্ঘাটন করতে না পারলেও কয়েকটি ইস্যুকে সামনে নিয়ে পুলিশ মাঠে নেমেছে। তবে তদন্তের স্বার্থে এখনই তা প্রকাশ করা যাচ্ছে না। এদিকে বুধবার দুপুরে আব্দুল হামিদ সড়কে নারী সাংবাদিক সুবর্ণা আক্তার নদীকে কুপিয়ে হত্যার প্রতিবাদে সাংবাদিকদের বিশাল মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধন থেকে হত্যাকারীদের গ্রেফতারে পুলিশকে ৪৮ ঘণ্টার আল্টিমেটাম দেয়া হয়েছে। পাবনা সংবাদপত্র পরিষদের সভাপতি আব্দুল মতীনের সভাপতিত্বে মানববন্ধন চলাকালে বক্তব্য রাখেন, প্রবীণ সাংবাদিক মুক্তিযোদ্ধা রবিউল ইসলাম রবি. পাবনা প্রেসক্লাবের সভাপতি অধ্যাপক শিবজিত নাগ, সাধারণ সম্পাদক আঁখিনুর ইসলাম রেমন, পাবনা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাধারণ সম্পাদক কাজী বাবলা, সংবাদপত্র পরিষদের সাধারণ সম্পাদক শহিদুর রহমান শহিদ, দৈনিক বিবৃতি সম্পাদক ইয়াছিন আলী মৃধা রতন, এনটিভির এবিএম ফজলুর রহমান, সিনসা সম্পাদক মাহবুব আলম, পাবনা টেলিভিশন ও অনলাইন সাংবাদিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক এসএ আসাদ প্রমুখ। বক্তারা এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে অবিলম্বে দোষীদের গ্রেফতার করে শাস্তির দাবি জানান এবং মানববন্ধন থেকে হত্যাকারীদের গ্রেফতারে পুলিশকে ৪৮ ঘণ্টার আল্টিমেটাম দেয়া হয়। অন্যথায় বৃহত্তর আন্দোলনের কর্মসূচী ঘোষণার হুঁশিয়ারি জানান। আনন্দ টিভি ও একটি নিউজ পোর্টালের পাবনা প্রতিনিধি সুবর্ণা নদী আটঘরিয়া উপজেলা একদন্ত গ্রামের আয়ুব আলীর মেয়ে। তার আট বছরের একটি মেয়ে রয়েছে। জনকন্ঠ।

User Comments

  • সারাদেশ