১৮ জুলাই ২০১৯ ১১:৩:৪২
logo
logo banner
HeadLine
এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল প্রকাশ, পাসের হার ৭৩.৯৩ * অরক্ষিত রেলক্রসিং, মাইক্রোবাসে ট্রেনের ধাক্কায় বর-কনেসহ নিহত ৯ * উন্নয়নের গতি বাড়াতে ডিসিদের প্রতি প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ * রোমাঞ্চকর ফাইনাল জিতে চ্যাম্পিয়ন ইংল্যান্ড * হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ এর জীবনাবসান * দুর্নীতির কারণে আমাদের অর্জনগুলো যেন নষ্ট হয়ে না যায় - প্রধানমন্ত্রী * কাপ্তাইয়ে পাহাড় ধসে নিহত ২, আরো ভারী বর্ষণ-ভূমিধসের সম্ভাবনা * বন্যাদুর্গতদের পাশে দাঁড়াতে নেতাকর্মিদের প্রতি প্রধানমন্ত্রীর আহ্বান * ১০ জেলায় বন্যা পরিস্থিতি অবনতির শঙ্কা, সতর্ক অবস্থানে সরকার * আরও বৃষ্টির আশংকা, বিপদসীমার উপরে প্রধান নদ-নদীর পানি * জলবায়ুর বিরূপ প্রভাব মোকাবেলায় সচেতন হতে বিশ্বনেতৃবৃন্দের প্রতি আহ্বান জানালেন প্রধানমন্ত্রী * গুজব ছড়ানো ইসলামে এক ভয়াবহ অপরাধ * কিছু কিছু ওসি-ডিসি নিজেদের জমিদার মনে করে: হাইকোর্ট * আরও ভারী বর্ষণের আশঙ্কা * প্রধানমন্ত্রীর চীন সফর, অর্জন অনেক বেশি * ৫ দিনের চীন সফর শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী, সোমবার সংবাদ সম্মেলন * ঝড়ো বাতাসের শঙ্কা, সাগরে ৩ নম্বর সতর্কতা * দ্রুত রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে ঢাকা-বেইজিং একমত * শেখ হাসিনা - লি কেকিয়াংয়ের বৈঠক , রোহিঙ্গা ফেরাতে মিয়ানমারকে রাজি করতে চেষ্টা চালানোর আশ্বাস চীনের * চীনের কাছ থেকে অনেক কিছু শেখার আছে : বেজিংয়ে প্রবাসী বাংলাদেশীদের সংবর্ধনায় প্রধানমন্ত্রী * ২৫ বছর পর ঈশ্বরদীতে শেখ হাসিনাকে হত্যা চেষ্টা মামলার রায় : ৯ জনের ফাঁসি, ২৫ জনের যাবজ্জীবন ও ১৩ জনের ১০ বছর * টেকসই বিশ্ব গড়ে তুলতে প্রধানমন্ত্রীর পাঁচ প্রস্তাব * বরগুনায় রিফাত হত্যা মামলার প্রধান আসামি নয়ন বন্ড বন্দুকযুদ্ধে নিহত * এরশাদের অবস্থা অপরিবর্তিত: প্রেস সেক্রেটারি * ৫ দিনের সফরে কাল চীন যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী * সন্দ্বীপ পৌরসভার ২০১৯-২০ অর্থবছরের বাজেট ঘোষনা * কোপা আমেরিকার সেমিতে আর্জেন্টিনার প্রতিপক্ষ ব্রাজিল * রোহিঙ্গা ইস্যুতে জাতিসংঘ ব্যর্থ - মাসুদ বিন মোমেন * সন্দ্বীপের গুপ্তছড়া ঘাটে ৪ যাত্রীকে পিটিয়ে নদীতে ফেল দেয়ার অভিযোগ * একটি স্বপ্ন *
     08,2018 Thursday at 10:02:39 Share

চট্টগ্রাম জেলা ও মহানগরের সাড়ে ৩ হাজার সন্ত্রাসী : বাঁশখালি ও সন্দ্বীপে রয়েছে অস্ত্র তৈরির একাধিক কারখানা , শীঘ্রই বিশেষ অভিযান

চট্টগ্রাম জেলা ও মহানগরের সাড়ে ৩ হাজার সন্ত্রাসী : বাঁশখালি ও সন্দ্বীপে রয়েছে অস্ত্র তৈরির একাধিক কারখানা , শীঘ্রই বিশেষ অভিযান

আসন্ন সংসদ নির্বাচনের আগে ও পরে বিভিন্নভাবে সহিংস এবং সশস্ত্র সন্ত্রাসে লিপ্ত হতে পারে এমন সাড়ে ৩ হাজার সন্ত্রাসীর তালিকা করা হয়েছে চট্টগ্রাম মহানগরী ও জেলার ১৪ উপজেলার ১৬টি থানাজুড়ে। জেলার বাঁশখালি ও সন্দ্বীপে রয়েছে অস্ত্র তৈরির একাধিক কারখানাও।
পুলিশসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর চলমান তৎপরতার পাশাপাশি চিহ্নিত এসব সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার অভিযান শুরু হচ্ছে বলে জানানো হয়েছে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ (সিএমপি) ও জেলা পুলিশ সুপার দফতর সূত্রে।
সূত্র জানায়, রাজনৈতিক অঙ্গনে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের সঙ্গে যুক্ত থাকা এমন কিছু অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীর অপতৎপরতা রয়েছে। আবার এসব সন্ত্রাসীরা অর্থের বিনিময়ে ভাড়ায় খেটে থাকে। সিএমপি ও জেলা পুলিশ আগামী নির্বাচনকে সামনে রেখে এ জাতীয় অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীদের একটি তালিকা করেছে। এ তালিকায় সরকারী দল সমর্থনের ব্যানারের সন্ত্রাসীও রয়েছে। গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে সিএমপি ও জেলা পুলিশ প্রশাসন সম্প্রতি এ জাতীয় সন্ত্রাসীদের একটি তালিকা সম্পন্ন করেছে। উভয় প্রশাসন সমন্বয় করে প্রণীত তালিকার ভিত্তিতে এদের বিরুদ্ধে অভিযান চালাবে। প্রশাসন আশা করছে এতে অবৈধ অস্ত্র যেমন উদ্ধার হবে তেমনি গ্রেফতারের আওতায় আসবে সন্ত্রাসী দলের সদস্যরা।
সূত্র আরও জানিয়েছে, চট্টগ্রাম মহানগর ও জেলাজুড়ে সংসদীয় আসনের সংখ্যা ১৬। এসব আসনে সরকারী দল আওয়ামী লীগ ছাড়াও অন্য রাজনৈতিক দল একক বা জোটগতভাবে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবে। অনেকে স্বতন্ত্রভাবে নির্বাচন করার সম্ভাবনা রয়েছে। সম্ভাব্য প্রার্থীদের পক্ষে ভোট আদায়ের জন্য এসব সন্ত্রাসীরা তৎপর হচ্ছে বলে গোয়েন্দা রিপোর্ট পাওয়ার পর সিএমপি ও জেলা পুলিশ প্রশাসন ইতোমধ্যেই আসনভিত্তিক সংশ্লিষ্ট সন্ত্রাসীদের তালিকা করেছে। সিএমপি কমিশনার মাহবুবর রহমান ও জেলা পুলিশ সুপার নুরে আলম মিনা বুধবার সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, সন্ত্রাসী তৎপরতাবিরোধী অভিযান চলমান রয়েছে। তবে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন ঘনিয়ে আসায় আইনশৃঙ্খলা ব্যবস্থা স্বাভাবিক রাখতে অভিযান জোরালো হবে। আইন বহির্ভূত কর্মকান্ডে বিশেষ করে অবৈধ অস্ত্রধারীরা যাতে কোনভাবে তাদের প্রভাব বিস্তার করতে না পারে সে লক্ষ্যে অভিযান হবে জোরদার। এক্ষেত্রে চিহ্নিতদের খুঁজে বের করার চেষ্টা চলবে। উভয় প্রশাসন আশা করছে, এক্ষেত্রে সুফল যে আসবে তা নিশ্চিত। নির্বাচনকে কেন্দ্র করে কোনভাবে পরিস্থিতি অস্থিতিশীল করতে দেয়া যাবে না।
সূত্র মতে, নির্বাচন উপলক্ষে প্রতিটি এলাকায় প্রার্থীদের সভা সমাবেশ ক্রমাগতভাবে বেড়ে যাবে। এ সময় রাজনীতির মাঠে আধিপত্য বিস্তারের চেষ্টা চালানোর সম্ভাবনাও রয়েছে। এসব বিষয়কে মাথায় রেখে সন্ত্রাসী ও সম্ভাব্য অস্ত্রধারীদের তালিকা করা হয়েছে। অতীতের রেকর্ড পর্যালোচনা করে রাজনীতির নামে যারা সহিংস সন্ত্রাসে তৎপর হয় এদের সংখ্যাই এ তালিকায় বেশি। তালিকায় সরকারী দল সমর্থিত প্রায় ৮০ জনের নামও রয়েছে, যাদের অতীত ভূমিকা আইনশৃঙ্খলার জন্য হুমকি হিসেবে মনে করা হচ্ছে। ফলে এদের কাউকে ছাড় না দেয়ার লক্ষ্য নিয়ে সিএমপি ও জেলা পুলিশ প্রশাসন সহসা এ অভিযান শুরু করবে বলে ধারণা দেয়া হয়েছে। এ বিষয়ে ইতোমধ্যে সরকারের উচ্চ মহলের গ্রিন সিগন্যাল নেয়া হয়েছে। যাতে করে সরকার দলীয় ব্যানার ব্যবহার করে সন্ত্রাসীরাও মঠে নামার সাহস না পায়। এছাড়া অন্যান্য রাজনৈতিক দলের সঙ্গে এবং তাদের পৃষ্ঠপোষকতায় যেসব সন্ত্রাসী রয়েছে তাদের চিহ্নিত করা হয়েছে, যাতে করে সন্ত্রাসমুক্ত পরিবেশে একটি অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন সম্পন্ন করা যেতে পারে। জনকণ্ঠ।

User Comments

  • চট্টগ্রাম