২০ জানুয়ারি ২০১৯ ১৫:৭:০৩
logo
logo banner
HeadLine
দুর্নীতি, জঙ্গিবাদ, মাদক, সন্ত্রাস দূর করতে হবে: সোহরাওয়ার্দীর বিজয় সমাবেশে প্রধানমন্ত্রী * ক্ষুধা ও দারিদ্রমুক্ত উন্নত সমৃদ্ধ সোনার বাংলা বিনির্মাণে সকলের সযোগিতা চাইলেন প্রধানমন্ত্রী * হজযাত্রীদের বিমান ভাড়া কমানোর ঘোষণায় প্রধানমন্ত্রীকে 'হাব' এর অভিনন্দন * ২৭শ' ইউনিয়নে বিনামূল্যে তিন মাস ইন্টারনেট * আজ সোহরাওয়ার্দীতে আওয়ামী লীগের বিজয় সমাবেশ * এরশাদের অবর্তমানে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জিএম কাদের * সাভারে ধর্ষণ মামলার মুল আসামির গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার * 'সুযোগ-সুবিধা বাড়ানো হয়েছে, এখন দুর্নীতি করলে ছাড় দেওয়া হবে না' * প্রধানমন্ত্রীর নামে ৬টি ভুয়া ফেসবুক পেইজসহ ৩৬টি পেইজ চালাতেন ফারুক * কোচিং বাণিজ্য বন্ধসহ ৫ নির্দেশনা দিলেন শিক্ষামন্ত্রী * নির্বাচন নিয়ে টিআইবির প্রতিবেদন রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত - তথ্যমন্ত্রী * টিআইবির প্রতিবেদন ভিত্তিহীন - সিইসি * সরকারের শুরুতেই সুশাসন প্রতিষ্ঠার কার্যক্রম শুরু * বিশ্বের বৃহত্তম দোসা বানালেন চেন্নাইয়ের একদল রাঁধুনি * কমোডের চেয়েও বেশি জীবাণু স্মার্টফোনে! * সংরক্ষিত আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম বিক্রি শুরু * অস্থির বাজারেও চালের দাম কমছে খাতুনগঞ্জে * ২৮ জানুয়ারির মধ্যে নবম ওয়েজবোর্ডের প্রজ্ঞাপন জারি: তথ্যমন্ত্রী * মালিক-শ্রমিক-সরকার ত্রিপক্ষীয় বৈঠক, ৬ গ্রেডে বেতন বাড়ল পোশাকশ্রমিকদের * দুর্নীতি, সন্ত্রাস ও মাদকের বিরুদ্ধে লড়াই চলবে: প্রধানমন্ত্রী * সারাদেশে ছড়িয়ে পড়ছে রোহিঙ্গারা, কাঁটাতারের বেড়া দিয়ে এলাকা আটকানোর পরিকল্পনা * গণতন্ত্রের স্বার্থে সংসদে আসা উচিত : প্রধানমন্ত্রী * নতুন সরকার ও দল শক্তিশালী করতে করণীয় নিয়ে কেন্দ্রীয় নেতাদের সঙ্গে আজ প্রধানমন্ত্রীর বৈঠক * আগামী ৫ দিন দেশব্যাপী বইবে মৃদু থেকে মাঝারী শৈত্যপ্রবাহ থাকবে কুয়াশাও * ওরা যেন আর ফিরে না আসে - নির্বাচনে অগ্নিসন্ত্রাসীদের প্রত্যাখ্যান প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী * জাতির পিতার সমাধিতে প্রধানমন্ত্রী ও মন্ত্রিসভা সদস্যদের শ্রদ্ধা * আজ জাতিরপিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস * পোশাক শ্রমিকদের বিক্ষোভ অব্যাহত, অনির্দিষ্টকালের জন্য কারখানা বন্ধ, বিজিবি মোতায়েন * একাদশ জাতীয় সংসদের প্রথম অধিবেশন বসছে ৩০ জানুয়ারি * সন্দ্বীপে গুলিতে শীর্ষ সন্ত্রাসী কালা মনির নিহত *
     14,2018 Friday at 20:39:33 Share

টেস্টের পর ওয়ানডে সিরিজও টাইগারদের

টেস্টের পর ওয়ানডে সিরিজও টাইগারদের

সফরকারী ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ নিশ্চিতের ম্যাচ। এর ওপর আবার আগের ম্যাচের হারের ধাক্কা। দুয়ে মিলে বাংলাদেশ শুরু থেকেই ছিল আক্রমণাত্মক। অসাধারণ বোলিংয়ের পর দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে জয়টা এলো তাই সহজেই। সিলেটের তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডেতে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ৮ উইকেটে উড়িয়ে তিন ম্যাচের সিরিজ ২-১ ব্যবধানে জিতেছে স্বাগতিকরা।


একা হাতে লড়ে যাওয়া শাই হোপের অসাধারণ সেঞ্চুরিতে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ক্যারিবিয়ানরা ৯ উইকেটে করেছিল ১৯৮ রান। সহজ এই লক্ষ্য তামিম ইকবাল ও সৌম্য সরকারের চমৎকার দুটি ইনিংসে ২ উইকেট হারিয়ে ১১.৩ ওভার আগেই টপকে যায় বাংলাদেশ। হাফসেঞ্চুরি পূরণ করে তামিম অপরাজিত ছিলেন ৮১ রানে, আর ঝড়ো ব্যাটিংয়ে সৌম্য করে যান ৮০ রান।


পাল্লা দিয়ে রান তুলেছেন তামিম ও সৌম্য। ২৩ রান করা লিটন দাসের আউটের পর রানের প্রতিযোগিতায় কখনও তামিম এগিয়ে গেছেন তো, পরক্ষণে এগিয়েছেন সৌম্য। হাফসেঞ্চুরির দৌড়ে তামিমই এগিয়ে ছিলেন, কারণ সৌম্যর আগে ব্যাটিংয়ে নেমেছিলেন তিনি।


তবে ফিফটি পূরণের পর তামিমকে টপকে যান সৌম্য। ওদিকে জয়ের লক্ষ্য কাছে চলে আসায় রান তোলায় প্রতিযোগিতায় নতুন উত্তেজনা তৈরি হয় সেঞ্চুরি পূরণ নিয়ে। যে কোনও একজনের পক্ষে শতক পাওয়া সম্ভব, এমন অবস্থায় তামিম সম্ভবত সুযোগটা করে দিয়েছিলেন এগিয়ে থাকা সৌম্যকে। এই ব্যাটসম্যানকে বেশি করে স্ট্রাইক দেওয়া এবং একই সঙ্গে তার ব্যাটিংয়েও সেটা ধরা পড়েছে স্পষ্ট।


যদিও সৌম্য সুযোগটা কাজে লাগাতে পারেননি। কিমো পলের বলের বোল্ড হয়ে তাকে ফিরতে হয় ৮০ রানে। ৮১ বলের ইনিংসটি তিনি সাজিয়েছেন ৫ চার ও ৫ বিশাল ছক্কায়। যদিও দলের জয় নিশ্চিত করেই মাঠ ছেড়েছেন তামিম। বাংলাদেশের সেরা ওপেনার ১০৪ বলে অপরাজিত ছিলেন ৮১ রানে, যাতে ছিল ৯ বাউন্ডারির মার। তার সঙ্গে দলের সিরিজ জয় নিশ্চিত করে মাঠ ছেড়েছেন ১৬ রান করা মুশফিকুর রহিম।


ম্যাচসেরা মিরাজ, সিরিজসেরা হোপ


তামিম ও সৌম্য চমৎকার দুটো ইনিংস খেললেও ম্যাচসেরার পুরস্কার উঠেছে মেহেদী হাসান মিরাজের হাতে। বল হাতে এই স্পিনার গুঁড়িয়ে দিয়েছিলেন ক্যারিবিয়ানদের টপ অর্ডার। ১০ ওভারে মেডেনসহ মাত্র ২৯ রান খরচায় ৪ উইকেট পাওয়ার পুরস্কার জিতেছেন তিনি।


দল হারলেও সিরিজসেরা হয়েছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের শাই হোপ। ব্যাটিংয়ে বসন্ত চলা এই ওপেনার টানা দ্বিতীয় ম্যাচে পেয়েছেন সেঞ্চুরি। তিন ম্যাচে অবিশ্বাস্য ২৯৭ গড়ে তার রান ২৯৭। গত দুই ম্যাচে তো তাকে আউটই করতে পারেননি বাংলাদেশের বোলাররা! চমৎকার পারফরম্যান্সের পুরস্কার হিসেবে হোপ হয়েছেন সিরিজের সেরা খেলোয়াড়।


তামিম-সৌম্যর হাফসেঞ্চুরি


টানা দ্বিতীয় হাফসেঞ্চুরি তুলে নিলেন তামিম ইকবাল। মিরপুরের দ্বিতীয় ওয়ানডের পর শুক্রবার সিলেটের শেষ ম্যাচেও পেয়েছেন ফিফটি। এই ওপেনারের পর হাফসেঞ্চুরি পূরণ করেছেন সৌম্য সরকার।


চোট কাটিয়ে প্রতিযোগিতামূলক ম্যাচে ফেরাটা সুখকর ছিল না তামিমের। যদিও ছন্দে ফিরতে সময় লাগেনি তার। ক্যারিবিয়ানদের বিপক্ষে দ্বিতীয় ম্যাচে হাফসেঞ্চুরি পূরণ করেন তিনি। পারফরম্যান্সের ধারা সচল রেখে শেষ ওয়ানডেও পেলেন ফিফটির দেখা। ২৪তম ওভারে দেবেন্দ্র বিশুর বল সীমানাছাড়া করে পূরণ করেন ওয়ানডে ক্যারিয়ারের ৪৪তম হাফসেঞ্চুরি।


এর কিছুক্ষণ পর সৌম্যও পান ফিফটির দেখা। ব্যাটিং অর্ডারে প্রোমশন পেয়ে তিন নম্বরে নেমে তার কার্যকরিতার প্রমাণ রাখলেন বাঁহাতি ব্যাটসম্যান। শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক ব্যাটিংয়ে সৌম্য পূরণ করেন ওয়ানডে ক্যারিয়ারের সপ্তম হাফসেঞ্চুরি।


১০০ ছাড়ালো বাংলাদেশ


তামিম ইকবাল ও সৌম্য সরকারের ব্যাটে ১০০ ছাড়ালো বাংলাদেশ। দারুণ শুরুর পর লিটন দাসের উইকেট হারিয়ে তিন অঙ্কের ঘরে পৌঁছে টাইগাররা। বিশাল ছক্কা মেরে দলের ১০০ রান পূরণ করেন সৌম্য। ২০.৫ ওভারে মারলন স্যামুয়েলসের বলে ৮৯ মিটারের বিশাল ছয় হাঁকান সৌম্য।


ইনিংস বড় করতে পারলেন না লিটন


শুরুটা দারুণ হয়েছিল লিটন দাসের। কিন্তু ইনিংস লম্বা করতে পারলেন না এই ওপেনার। কিমো পলের বলে সহজ ক্যাচ দিয়ে প্যাভিলিয়নে ফিরেছেন তিনি।


ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে প্রথম ওয়ানডেতে খেলেছিলেন ৪১ রানের ইনিংস। যদিও দ্বিতীয় ম্যাচে হতাশ করেছিলেন লিটন। শেষ ম্যাচে উদ্বোধনী জুটিতে ভালো কিছুর প্রত্যাশা ছিল তার কাছে। চমৎকার ব্যাটিংয়ে দারুণ শুরুতে সেই প্রত্যাশার জবাব অনেকটাই মিলছিল। কিন্তু ব্যক্তিগত ২৩ রানে ভুল শট খেলে প্যাভিলিয়নে ফেরেন তিনি। কিমো পলের বলে মিড-অনে রোভম্যান পাওয়েলের হাতে ধরা পড়ার আগে ৩৩ বলের ইনিংসে মারেন ৫ বাউন্ডারি।


বাংলাদেশের দারুণ শুরু


ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ১৯৯ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে শুরুটা দারুণ হয়েছে বাংলাদেশের। দুই ওপেনার তামিম ইকবাল ও লিটন দাস চমৎকার ব্যাটিংয়ে বাড়িয়ে নিচ্ছেন দলের রান। সিলেটের সিরিজ নির্ধারণী ম্যাচে ৭ ওভার শেষে কোনও উইকেট না হারিয়ে স্বাগতিকদের সংগ্রহ ২৭ রান।


জিততে বাংলাদেশের চাই ১৯৯


সিলেটে মেহেদী হাসান মিরাজের দুর্দান্ত বোলিংয়ে শুরুতেই চাপে পড়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। কিন্তু ক্রিজের একপ্রান্ত দারুণভাবে আগলে রাখেন শাই হোপ। তারা টানা দ্বিতীয় সেঞ্চুরিতে বাংলাদেশের বিপক্ষে তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডেতে ক্যারিবিয়ানরা নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৯ উইকেটে করেছে ১৯৮ রান।


সিরিজ জয়ের লক্ষ্যে বাংলাদেশের চাই ১৯৯ রান। হোপ ১৩১ বলে ১০৮ রানে অপরাজিত ছিলেন। ১২১ বলে ৯ চার ও ১ ছয়ে চতুর্থ সেঞ্চুরি পূরণ করেন ডানহাতি ব্যাটসম্যান।


একাই দলকে উদ্ধার করেছেন হোপ। তার ধারে কাছেও রান করতে পারেননি অন্য ব্যাটসম্যানরা। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ১৯ রান এসেছে মারলন স্যামুয়েলসের ব্যাটে। এছাড়া দুই অঙ্কের ঘরে যেতে পেরেছেন কেবল ড্যারেন ব্রাভো (১০) ও কিমো পল (১২)।


শুরুতেই মিরাজের স্পিনে দিশেহারা হয়ে পড়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ৯৯ রানে প্রতিপক্ষের হারানো ৫ উইকেটের ৪টিই তার শিকার। চন্দরপল হেমরাজ, ড্যারেন ব্রাভো, শিমরন হেটমায়ার ও রোভম্যান পাওয়েলের উইকেট নেন মিরাজ। ১০ ওভারে ১ মেডেনসহ ২৯ রান দিয়ে ৪ উইকেট নিয়ে বাংলাদেশের সবচেয়ে সফল বোলার তিনি। বাংলাট্রিবিউন।

User Comments

  • খেলাধুলা