১২ নভেম্বর ২০১৯ ১৭:৪৬:৫১
logo
logo banner
HeadLine
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় তূর্ণা -ঊদয়ন সংঘর্ষ, নিহত ১৫ আহত শতাধিক * রোহিঙ্গা গণহত্যায় মিয়ানমারের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক আদালতে গাম্বিয়ার মামলা * দূর্বল হয়ে পড়ছে 'বুলবুল', বন্দরসমূহে ৩ নং সতর্ক সংকেত * খুনীদের জন্য এত মায়া কান্না কেন * ভারতের মাঠে বাংলাদেশের প্রথম জয় * জেএসসি ও জেডিসি পরীক্ষা শুরু * ২ থেকে ৭ নবেম্বর বিপ্লব নয়, ষড়যন্ত্র হয়েছিল * জুয়াড়ীদের সাথে কথোপকথনের জেরে দুই বছর নিষিদ্ধ সাকিব, অভিযোগ স্বীকার করায় এক বছরের নিষেধাজ্ঞা মওকুফ * অপরাধ করে কেউ পার পাবে না, ধরা হবে সবাইকে - প্রধানমন্ত্রী * ন্যাম সম্মেলনে যোগদান শেষে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী * ন্যাম সম্মেলনে যোগ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী * নুসরাত হত্যায় সিরাজসহ অভিযুক্ত ১৬ জনেরই ফাঁসি * আলোচনা ফলপ্রসূ, আমরা খুশি, খেলায় ফিরছি: সাকিব * সংবাদ সম্মেলনে ক্রিকেটাররা, দাবি বেড়ে এখন ১৩টি * ক্রিকেটারদের দাবি মেনে নিতে আমরা প্রস্তুত বিসিবি * ১১ দফা দাবিতে ক্রিকেটারদের খেলা বর্জন * আরও ১টি সিটি কর্পোরেশন, ১টি পৌরসভা ও ৭টি থানার অনুমোদন * সুশাসন প্রতিষ্ঠায় সরকারের শুদ্ধি অভিযান * ভারতের তুলনায় বাংলাদেশের অর্থনীতি সঠিক পথে - অভিজিৎ ব্যানার্জি * হৃদরোগ ও মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণের মূল কারণ চিনি * সবচেয়ে সুবিধাজনক অবস্থায় বাংলাদেশের অর্থনীতি * যুবলীগের বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা রবিবার, বৈঠকে থাকছেন না ওমর ফারুক চৌধুরী * পাপ পুণ্যের দানবে অসহায় মানুষ * র্যা গিংয়ের শিকার হলে নালিশ করুন, বিচার হবে : আইনমন্ত্রী * চট্টগ্রামে তিন মেট্রোরেল নির্মাণে সম্ভাব্যতা যাচাইয়ে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ * আরও দু'টি মেট্রোরেল রাজধানীতে * এক বাঙালিসহ অর্থনীতিতে নোবেল পেলেন ৩ জন * বাংলাদেশ এখন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনারও রোল মডেল : প্রধানমন্ত্রী * ছাত্র রাজনীতি কিংবা ছাত্রলীগ নয়, টার্গেট সরকার * হঠাৎ চারদিকে কেমন যেন অস্বস্তি *
     16,2019 Tuesday at 08:18:39 Share

চট্টগ্রামের শিক্ষার্থীদের জন্য প্রধানমন্ত্রীর ১০ বাস উপহার

চট্টগ্রামের শিক্ষার্থীদের জন্য প্রধানমন্ত্রীর ১০ বাস উপহার

চট্টগ্রাম মহানগরীতে অধ্যয়নরত স্কুল শিক্ষার্থীদের নিরাপদ যাতায়াতের জন্য প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে বিআরটিসির ১০টি বাসের সমন্বয়ে চালু হতে যাচ্ছে ‘স্টুডেন্ট বাস সার্ভিস’। প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর থেকে এ ব্যাপারে নির্দেশনা দিয়ে একটি চিঠি চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসকের কাছে পাঠানো হয়েছে। ফলে এখন সবার সাথে সমন্বয় করে স্কুল টাইমে কোন কোন রুটে বাসগুলো চলবে তা শীঘ্রই ঠিক করা হবে বলে জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ ইলিয়াস হোসেন।
চট্টগ্রামের স্কুল শিক্ষার্থীদের দীর্ঘদিনের দাবি ছিল- নিরাপদ সড়ক ও স্কুল বাসের। অবশেষে খুদে শিক্ষার্থীদের সেই দাবি পূরণ করলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ইতোমধ্যে বিআরটিসির ১০টি অত্যাধুনিক বাস বরাদ্দের নির্দেশনা দেয়া হয়েছে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়কে। স্কুল চলাকালীন নগরীর বিভিন্ন রুটে শিক্ষার্থীদের নিজ নিজ গন্তব্যে নিয়ে যাবে এসব বাস। প্রধানমন্ত্রীর এ মানবিক উদ্যোগের ফলে চট্টগ্রাম মহানগরীর সকল সরকারি ও বেসরকারি স্কুল শিক্ষার্থীরা নিরাপদে স্কুলে যেতে এবং স্কুল থেকে বাসায় ফিরতে পারবে বলে আজাদীকে জানিয়েছেন নগরীর বিভিন্ন স্কুলের শিক্ষক-অভিভাবকরা।


এ ব্যাপারে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ ইলিয়াস হোসেন জানান, চট্টগ্রামে স্কুল ছাত্ররা স্কুল বাস ও নিরাপদ সড়কের দাবিতে দীর্ঘদিন আন্দোলন করেছিল। তাদের এই দাবির প্রেক্ষিতে নিরাপদ যাতায়াতে বিআরটিসির ১০টি বাস চালুর জন্য প্রধানমন্ত্রীর একান্ত সচিব-১ মো. তোফাজ্জল হোসেন মিয়া সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সচিবের কাছে বাস সার্ভিস চালুর জন্য একটি চিঠি দিয়েছেন। ওই চিঠির অনুলিপি আমাকে (জেলা প্রশাসক), চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তাকে ও জেলা শিক্ষা কর্মকর্তাকে পাঠানো হয়েছে। বাসগুলো নগরীতে সমন্বয় করে চালুর উদ্যোগ নেবো। কোন কোন রুটে বাসগুলো চলবে তা সংশ্লিষ্ট সবার সাথে বসে নির্ধারণ করা হবে। এ ব্যাপারে আমরা একটি নীতিমালা করবো। বাসগুলো শুধু স্কুল সময়ের মধ্যে চলবে। স্কুল যেদিন বন্ধ থাকবে সেদিন চলবে না।


 ‘চট্টগ্রাম স্কুল বাস সার্ভিস ও হাফ ভাড়া আন্দোলনের’ নেতা নূরুল আজিম রনি বলেন, আমরা দীর্ঘদিন ধরে নগরীর সরকারি স্কুলের শিক্ষার্থীদের জন্য বাস সার্ভিস ও সকল শিক্ষার্থীর জন্য পাবলিক বাসে ‘হাফ ভাড়া’ চালুর দাবি জানিয়ে আসছিলাম। এ নিয়ে অনেক আন্দোলন সংগ্রাম করেছি। এ বিষয়ে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকেও স্মারকলিপি দিয়েছিলাম। অবশেষে আমাদের দাবির প্রেক্ষিতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শিক্ষার্থীদের জন্য ১০টি বাস চালুর নির্দেশ দিয়েছেন। জেলা প্রশাসককে পাঠানো প্রধানমন্ত্রীর দফতরের চিঠির কপিও আমারা পেয়েছি। শীঘ্রই আমরা প্রধানমন্ত্রীর উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে আনন্দ মিছিল করব। আজাদী।

User Comments

  • আরো