১৬ ডিসেম্বর ২০১৯ ৫:৪৯:৫৮
logo
logo banner
HeadLine
সরকার সশস্ত্র বাহিনীকে একটি আধুনিক-সুদক্ষ বাহিনীতে পরিণত করার লক্ষ্যে কাজ করছে : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা * ১০ হাজার ৭৮৯ রাজাকারের তালিকা প্রকাশ * প্রজন্ম থেকে প্রজন্মকে সচেতন থাকতে হবে: প্রধানমন্ত্রী * একজন অফিসার চাইলে জেলা-উপজেলার চেহারা পাল্টে দিতে পারেন - প্রধানমন্ত্রী * রাখাইনে গণহত্যা : আইসিজেতে বিচারের শুনানি শুরু * ১৬ ডিসেম্বর থেকে রাষ্ট্রের সর্বস্তরে 'জয় বাংলা' জাতীয় স্লোগান হওয়া উচিত : হাইকোর্ট * আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা করা হবে, অপরাধীকে শাস্তি পেতেই হবে * ইভিনিং কোর্স পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর সার্বিক শিক্ষার পরিবেশ বিঘ্নিত করছে : রাষ্ট্রপতি * রাষ্ট্রপতির ভাষণের খসড়া মন্ত্রিসভায় অনুমোদন * নারী ও শিশু নির্যাতন রোধে জনগণকে সতর্ক থাকার আহ্বান জানালেন প্রধানমন্ত্রী * নারীদের পর পুরুষ দলও এসএ গেমস ক্রিকেটে স্বর্ণ জিতলো * প্রত্যেক টিআইএনধারীকে রিটার্ন দাখিলে বাধ্য করা হবে * আগামী দিনের আওয়ামী লীগ * রোহিঙ্গা ক্যাম্পে কাঁটাতারের বেড়া নির্মাণ কাজ শুরু করেছে সেনাবাহিনী * চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামীলীগের নতুন নেতৃত্বে সালাম-আতাউর * ৬ ডিসেম্বার, ১৯৭১ : 'বাংলাদেশ স্বাধীন' - ভারত * মেরিটাইম উচ্চশিক্ষার প্রয়োজনীয়তা * বছরের প্রথম দিনই চার কোটি ৩০ লাখ শিক্ষার্থীর হাতে তুলে দেয়া হবে ৩৫ কোটি বই * বাংলাদেশ-ভারত যৌথ কমান্ড : ৩ ডিসেম্বর, ১৯৭১ * মুক্তিযোদ্ধাদের অসচ্ছলতা রাষ্ট্রের জন্য লজ্জার: হাইকোর্ট * স্পেন সফর শেষে ঢাকার পথে প্রধানমন্ত্রী * ব্যর্থ হলে শিশুরা ক্ষমা করবে না, বিশ্বনেতাদের হাসিনা * কপ-২৫ সম্মেলন ও বাংলাদেশ * মাদ্রিদে শুরু হলো জলবায়ু সম্মেলন কপ-২৫, যোগ দিচ্ছেন শেখ হাসিনা * দুর্নীতি, সন্ত্রাস ও মাদকের বিরুদ্ধে অভিযান অব্যাহত থাকবে - প্রধানমন্ত্রী * চলতি মাসে একাধিক শৈত্যপ্রবাহের সম্ভাবনা * অনলাইন সংবাদ মাধ্যমের নিবন্ধন শুরু আগামী সপ্তাহে: তথ্যমন্ত্রী * বাড়ি ভাড়া নির্ধারণ নিয়ে হাইকোর্টের রুল * 'অবৈধভাবে উপার্জিত অর্থ দিয়ে বিরিয়ানি-পোলাও খাওয়ার চেয়ে সাদাসিধে জীবনযাপন করা অনেক অনেক সম্মানের - প্রধানমন্ত্রী * রোহিঙ্গা ইস্যুতে রিয়াদ সবসময় বাংলাদেশের পাশে থাকবে *
     21,2019 Sunday at 09:18:44 Share

আজ পবিত্র শব-ই-বরাত

আজ পবিত্র শব-ই-বরাত

আজ পবিত্র লাইলাতুল বরাত বা শব-ই-বরাত। ‘শব’ শব্দটি ফারসি, অর্থ রাত। আর ‘বারায়াত’ শব্দের অর্থ হল- নাজাত, নিষ্কৃতি বা মুক্তি। শাবান মাসের মধ্যবর্তী রাতে পবিত্র শবেবরাত পালিত হয়। শবেবরাত হলো আল্লাহ তায়ালার মহান দরবারে ক্ষমা প্রার্থনার বিশেষ সময়। আল্লাহ তায়ালার নৈকট্য ও সান্নিধ্য লাভের এক দুর্লভ সুযোগ এনে দেয় এই রাত। এ রাতে মুসলিম সমপ্রদায় নফল নামাজ আদায় ও কোরআন তিলাওয়াত, ইস্তেগফার, ইবাদত-বন্দেগি, জিকির-আসকার ও দোয়ায় মশগুল থাকেন। ইসলামের ইতিহাসে এই রজনীকে মহিমান্বিত হিসেবে গণ্য করা হয়ে থাকে। ইসলামী বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এই রাতে আল্লাহ তাঁর বান্দার দিকে দৃষ্টি দেন। বান্দার গোনাহ মাফ করে দেন।


রবিবার দিবাগত রাতে শব-ই-বরাতের মহিমা শুরু হবে। পবিত্র রমজান শুরু হওয়ার আগে শাবান মাসের মধ্য রজনীকে লাইলাতুল বরাত হিসেবে ধরা হয়। ১৪ শাবান দিন শেষে সন্ধ্যা থেকে রাতটি বান্দার কাছে হাজির হয়। যথাযথ মর্যাদায় অধিকাংশ মুসলমান এই রাতে আল্লাহর সান্নিধ্য লাভের আশায় ইবাদত- বন্দেগী করে থাকে। বিভিন্ন ইসলামী ও ধর্মীয় সংগঠনের পক্ষ থেকে লাইলাতুল বরাতের রাতে ইবাদতের জন্য বিশেষ কর্মসূচী নেয়া হয়েছে। রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং সংসদে বিরোধীদলীয় নেত্রী বেগম রওশন এরশাদ লাইলাতুল বরাত উপলক্ষে পৃথক বাণী দিয়েছেন।


রাষ্ট্রপতি তার বাণীতে পবিত্র শব-ই-বরাতে দেশের অব্যাহত অগ্রগতি, কল্যাণ এবং মুসলিম উম্মাহর বৃহত্তর ঐক্যের প্রার্থনা করেছেন। একই সঙ্গে দেশবাসীসহ সমগ্র মুসলিম উম্মাহর প্রতি আন্তরিক মোবারকবাদ জানিয়েছেন। তিনি বলেন, শব-ই-বরাত মুসলমানদের জন্য এক মহিমান্বিত ও বরকতময় পবিত্র রজনী। মাহে রমজান ও সৌভাগ্যের আগমনী বারতা নিয়ে পবিত্র লাইলাতুল বরাত প্রতিবারের ন্যায় এবারও আমাদের মাঝে সমাগত।


প্রধানমন্ত্রী তার বাণীতে শান্তির ধর্ম ইসলামের চেতনাকে ব্যক্তি, সমাজ ও জাতীয় জীবনের সব স্তরে প্রতিষ্ঠা এবং পবিত্র শব-ই-বরাতের মাহাত্ম্যে উদ্বুদ্ধ হয়ে মানব কল্যাণ ও দেশ গড়ার কাজে আত্মনিয়োগ করার জন্য সবার প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। বাংলাদেশ এবং বিশ্বের সকল মুসলমানকে পবিত্র শব-ই-বরাত উপলক্ষে আন্তরিক মোবারকবাদ জানান। বলেন, সৌভাগ্যের এই রজনী মানবজাতির জন্য বয়ে আনে মহান আল্লাহ্র অশেষ রহমত ও বরকত। এই রাতে তিনি ক্ষমা প্রদর্শন এবং প্রার্থনা পূরণের অনুপম মহিমা প্রদর্শন করেন। ইসলামী বিশেষজ্ঞরা বলছেন, মানবজাতিকে আল্লাহ্তা’য়ালার বিশেষ অনুগ্রহ ও ক্ষমা লাভের অপার সুযোগ এনে দেয় পবিত্র এই রজনী। নফল রোজার পাশাপাশি আল্লাহর নৈকট্য ও ক্ষমা লাভের লক্ষ্যে মুসলিমরা রাত জেগে ইবাদত-বন্দেগী করেন।


এদিকে পবিত্র লাইলাতুল বরাত উপলক্ষে বিভিন্ন ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে বিশেষ কর্মসূচীও নেয়া হয়েছে। এর মধ্যে ইসলামিক ফাউন্ডেশন রাতব্যাপী ইবাদত-বন্দেগীর আয়োজন করেছে। এসব ইবাদত-বন্দেগীর মধ্যে রয়েছে কোরান তেলাওয়াত, হামদ-নাত, ওয়াজমাহফিল, জিকির, দোয়া ও বিশেষ মুনাজাত।


এদিকে পবিত্র শব-ই-বরাতের পবিত্রতা রক্ষা ও শান্তিপূর্ণভাবে উদযাপন নিশ্চিত করতে আতশবাজি, পটকাবাজি, অন্যান্য ক্ষতিকারক ও দূষণীয় দ্রব্য বহন এবং ফোটানো নিষিদ্ধ করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ। রবিবার সন্ধ্যা ৬টা থেকে সোমবার ভোর ৬টা পর্যন্ত নিষেধাজ্ঞা কার্যকর থাকবে।

User Comments

  • ধর্ম ও নৈতিকতা