১৩ জুলাই ২০২০ ৫:১৯:১৭
logo
logo banner
HeadLine
ডাঃ সাবরিনা বরখাস্ত, রিমান্ড চাইবে পুলিশ * ১২ জুলাই : দেশে আজ শনাক্ত ২,৬৬৬ , মৃত ৪৭ * করোনার মনগড়া রিপোর্ট দেয়ার অভিযোগে জেকেজি'র চেয়ারম্যান ডা. সাবরিনা গ্রেফতার * নিম্ন আদালতের সব কোর্টে আত্মসমর্পণ করা যাবে * ১১ জুলাই : সন্দ্বীপের ৩ জনসহ চট্টগ্রামে শনাক্ত আরও ১০৫ * ১১ জুলাই : দেশে আজ শনাক্ত ২,৬৮৬ , মৃত ৩০ * ১০ জুলাই : চট্টগ্রামে শনাক্ত আজ ১৯২ * ১০ জুলাই : দেশে আজ শনাক্ত ২,৯৪৯ , মৃত ৩৭ * ৯ জুলাই : চট্টগ্রামে শনাক্ত আজ ১৬২ * সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাহারা খাতুন আর নেই, রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শোক * আমরাই চোর ধরছি আর আমাদেরকেই চোর বলা হচ্ছে, এটাই দুর্ভাগ্য: প্রধানমন্ত্রী * দুর্নীতিবাজ যেই হোক ব্যবস্থা গ্রহণ অব্যাহত থাকবে : প্রধানমন্ত্রী * ০৯ জুলাই : দেশে আজ শনাক্ত ৩৩৬০ , মৃত ৪১ * অভিবাসীদের ওপর কোভিড-১৯-এর প্রভাব লাঘবে 'জোরালো বৈশ্বিক পদক্ষেপের' আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর * করোনায় সেনা কর্মকর্তা আজিমের মৃত্যু * ৮ জুলাই : চট্টগ্রামে শনাক্ত আজ ২৫৯ * ইতিহাস কেউ মুছে ফেলতে পারে না, কোনও না কোনভাবে সেটা সামনে আসবেই : প্রধানমন্ত্রী * ১৪ দলের নতুন সমন্বয়ক ও মুখপাত্র আমির হোসেন আমু * ০৮ জুলাই : দেশে আজ শনাক্ত ৩৪৮৯ , মৃত ৪৬ * ৭ জুলাই : চট্টগ্রামে শনাক্ত আজ ২৯৫ * ০৭ জুলাই : দেশে আজ শনাক্ত ৩০২৭ , মৃত ৫৫ * ৬ জুলাই : চট্টগ্রামে শনাক্ত আজ ২৯৭ * রিজেন্ট হাসপাতালে র্যা বের অভিযান : মনগড়া রিপোর্ট প্রদান ও প্রতারণা করে বিল আদায়, আটক ৮ * একনেকে ৯ প্রকল্প অনুমোদন * ০৬ জুলাই : দেশে আজ শনাক্ত ৩২০১ , মৃত ৪৪ * জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী এন্ড্রু কিশোরের মৃত্যু, রাষ্ট্রপতি প্রধানমন্ত্রী ও স্পীকারের শোক * ৫ জুলাই : চট্টগ্রামে শনাক্ত ১০ হাজার ছাড়ালো, আজ ২৯২ * বহির্বিশ্বে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রশংসা * আধুনিক বাংলাদেশের রূপকার শেখ হাসিনা * ৫ জুলাই : দেশে আজ শনাক্ত ২৭৩৮ , মৃত ৫৫ *
     28,2019 Friday at 22:45:22 Share

সন্দ্বীপের গুপ্তছড়া ঘাটে ৪ যাত্রীকে পিটিয়ে নদীতে ফেল দেয়ার অভিযোগ

সন্দ্বীপের গুপ্তছড়া ঘাটে ৪ যাত্রীকে পিটিয়ে নদীতে ফেল দেয়ার অভিযোগ

সন্দ্বীপে লালবোট থেকে চার যাত্রীকে পিটিয়ে নদীতে ফেলে দেয়ার ঘটনা ঘটেছে। বৃহস্পতিবার (২৭ জুন) চট্টগ্রাম জেলা পরিষদের মালিকানাধীন কুমিরা গুপ্তছড়া ফেরী ঘাটের গুপ্তছড়া অংশে এ ঘটনা ঘটে। হামলার শিকার হওয়া ওই চার যাত্রী হলেন মো. মানিক, মো. সোহেল, মো. শিবলু ও মো. শিহাদ৷ তারা সবাই মুছাপুরের আলীমিয়ার বাজার এলাকার মান্দিরগো বাড়ির বাসিন্দা ও সম্পর্কে আত্মীয়।




জানা যায়, সোহেল ও শিবলু পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের আনতে কুমিরা ঘাট থেকে সার্ভিস বোটে করে সন্দ্বীপ যাচ্ছিলেন। তাদের মা-বাবাসহ পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা তাদের সাথে ছিলেন। সন্দ্বীপের কূলে আসার পর ভাটার কারণে সার্ভিস বোট থেকে যাত্রীদের কূলে নামানোর জন্য আসা লাল বোটে ওঠানো হচ্ছিল। সাথে ছোট বাচ্চা ও মহিলা থাকায় সোহেল অতিরিক্ত যাত্রী উঠায় সেই বোটে উঠতে অস্বীকৃতি জানায়। কিন্তু বোটের চালক ও স্টাফরা তাকে নামতে জোরজবরদস্তি শুরু করে। সোহেল তাতেও অসম্মতি জানালে স্টাফদের একজন সোহেলকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ শুরু করে৷ গালির প্রতিবাদ করার পর স্টাফরা প্রথমে সোহেলকে ধাক্কা দিয়ে সার্ভিসবোট থেকে লাল বোটে ফেলে দেয়। পরে সেখানে তাকে বেধড়ক পেটায়। সোহেলকে বাঁচাতে এগিয়ে এলে তার বাাব ও ছোট দুই ভাইকেও মারধর করে ঘাট ইজারাদারের লোকজন। এ সময় সার্ভিস বোটে থাকা যাত্রীরা বাধা দেয়ার চেষ্টা করলে ইজারাদারের লোকজন লালবোট চালিয়ে সার্ভিস বোট থেকে দূরে সরে যায়। সেখানে ওই অবস্থায় আরেক দফা মারধর করে। পরে কূলের কাছাকাছি এলে একজন কর্মচারী সোহলকে লাথি দিয়ে নদীতে ফেলে দেয়।

প্রত্যক্ষদর্শী আরাফাত রহমান সাব্বির জানান, হঠাৎ করেই দেখি ঘাটের লোকজন মিলে লালবোটে ফেলে একজনকে মারছে। ওই লোককে বাঁচাতে ২/৩ জন সার্ভিস বোট থেকে লাফিয়ে লাল বোটে নামে । সাথে সাথে তারা লালবোটটা সার্ভিস বোটের কাছ থেকে সরিয়ে নেয়। কিছুদূর নিয়ে গিয়ে নৌকা থামিয়ে নদীর মাঝখানে তাদের আবার পেটানো হয়। পরে কূলে নিয়ে লাথি মেরে বোট থেকে ফেলে দেয়। তার মা-বোনসহ স্ত্রী ও মেয়ে ওই সময় সার্ভিস বোটে ছিল।

হামলার শিকার সোহেল জানান, একটি লালবোটে ৬০ জনের বেশী যাত্রী নেওয়ায় আমি উঠতে রাজি হইনি। এজন্য ওরা আমাকে ও আমার ভাইদের মেরে নদীতে ফেলে দিয়েছে। দীর্ঘদিন ধরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কুমিরা গুপ্তছড়া ঘাটে যাত্রীদের প্রতি অত্যাচার করার কথা শুনেছিলাম।আজ তারা আমাদের মেরে ফেলতে চেয়েছিল।

এ ঘটনায় কুমিরা গুপ্তছড়া ঘাটের ইজারাদারের সাথে কথা বলতে চাইলে তাকে মোবাইলে পাওয়া যায়নি। সন্দ্বীপ থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

সন্দ্বীপ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ মো. শরিফুল আলম বলেন, গুপ্তছড়া ঘাটে যাত্রীদের উপর হামলার একটি অভিযোগ পেয়েছি। আমরা তদন্ত করে আইনি ব্যাবস্থা নেব।

সূত্রঃ দৈনিক পূর্বকোণ।

User Comments

  • সন্দ্বীপ প্রতিদিন