২৯ মে ২০২০ ২৩:৪৩:২৭
logo
logo banner
HeadLine
২৯ মে : পরীক্ষার সাথে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে সংক্রমন, দেশে আজ শনাক্ত আরও ২৫২৩ * করোনা পরীক্ষার অনুমতি পেল চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় * ২৮ মে: চট্টগ্রামে শনাক্ত আরও ২২৯ * এ পর্যন্ত ৬ কোটি মানুষকে ত্রাণ সহায়তা দিয়েছে সরকার * সমুদ্রবন্দরে ৩ নম্বর সতর্ক সংকেত বহাল, বৃষ্টিপাত থাকতে পারে আরও ৩ দিন * ২৮ মে : দেশে আজ শনাক্ত আরও ২০২৯, মৃত ১৫ * ১৫ শর্তে ৩১ মে থেকে ১৫ জুন পর্যন্ত চলাচল সীমিত করে অফিস ও গণপরিবহন চালু * চট্টগ্রাম সিটিতে ১২টি করোনা টেস্টিং বুথ বসানোর উদ্যোগ মেয়রের * ২৭ মে : চট্টগ্রামে শনাক্ত আরও ২১৫ * ২৭ মে : দেশে আজ শনাক্ত আরও ১৫৪১, মৃত ২২ * সহসাই অনলাইন সংবাদ পোর্টালের রেজিস্ট্রেশন দেওয়ার হবে : তথ্যমন্ত্রী * চট্টগ্রামে করোনার চিকিৎসায় যুক্ত হচ্ছে বেসরকারী হাসপাতাল ইম্পেরিয়াল ও ইউএসটিসি * ২৬ মে : ল্যাব প্রধানসহ চট্টগ্রামে শনাক্ত আরও ৯৮ * ২৬ মে : দেশে আজ শনাক্ত আরও ১১৬৬, মৃত ২১ * বায়ুচাপের তারতম্যে, সমুদ্রবন্দরসমূহে ৩ নম্বর সতর্ক সংকেত * করোনা সংকটে দরিদ্রদের পাশে দাঁড়াতে সমাজের বিত্তবানদের প্রতি আহবান রাষ্ট্রপতির * যথাযোগ্য মর্যাদায় সারাদেশে পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপন * যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা ও শহীদ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সদস্যদের জন্য প্রধানমন্ত্রীর শুভেচ্ছা ও ঈদ উপহার * ২৫ মে : চট্টগ্রামে শনাক্ত আরও ১৭৯ * যুক্তরাষ্ট্রে পিপিই রপ্তানি শুরু করলো বাংলাদেশ * ২৫ মে : দেশে আজ শনাক্ত আরও ১৯৭৫, মৃত ২১ * ২৪ মে : চট্টগ্রামে আরও ৬৫ জনের করোনা শনাক্ত * আজ পবিত্র ঈদুল ফিতর, রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শুভেচ্ছা * করোনায় মারা গেলেন এনএসআই কর্মকর্তা সন্দ্বীপের নাছির উদ্দিন * সন্দ্বীপবাসীকে পবিত্র ইদুল ফিতরের শুভেচ্ছা জানালেন মেয়র * ২৪ মে : দেশে আজ শনাক্ত আরও ১৫৩২, মৃত ২৮ * করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত চলবে সরকারি সহায়তা, জীবন-জীবিকার স্বার্থে চালু করতে হবে অর্থনৈতিক কর্মকান্ড - প্রধানমন্ত্রী * সন্ধ্যায় জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা * ২৩ মে : চট্টগ্রামে নতুন শনাক্ত ১৬৬ * করোনাকালীন সঙ্কটে পড়া সন্দ্বীপ পৌরসভার কর্মহীনদের বরাবরে সরকারের দেয়া ২৫০০ টাকা ছাড় শুরু *
     25,2020 Wednesday at 09:14:50 Share

বিদেশফেরতরা কোথায় আছেন তা থানায় না জানালে ব্যবস্থা

বিদেশফেরতরা কোথায় আছেন তা থানায় না জানালে ব্যবস্থা

চলতি মাসে বিদেশ থেকে দেশে আসা ব্যক্তিদের অবস্থান জানাতে কড়া নির্দেশনা জারি করল পুলিশ সদর দফতর। নির্দেশনা মোতাবেক বিদেশ ফেরতরা যেখানে অবস্থান করছেন, সেখানকার বা আশপাশের কোন থানায় গিয়ে তাদের অবস্থান জানানোর নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। পাশাপাশি তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করার মোবাইল নম্বরও থানায় লিপিবদ্ধ করার কথা বলা হয়েছে। তবে বিদেশ ফেরত ব্যক্তির পক্ষে অন্য কেউ বা তার মনোনীত কোন ব্যক্তির বিদেশ থেকে আসার ব্যক্তি সম্পর্কে থানায় তথ্য দিতে পারবেন। এমন নির্দেশনা না মানলে বিদেশ থেকে আসা ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার ঘোষণা জারি করা হয়েছে। পাশাপাশি তাদের পাসপোর্টের কার্যক্রম স্থগিত ও প্রয়োজনে বাতিল করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে পুলিশ সদর দফতর।


মঙ্গলবার পুলিশ সদর দফতরের তরফ থেকে এমন নির্দেশনা জারি করা হয়েছে। জারিকৃত নির্দেশনা পুলিশের প্রতিটি বিভাগ ও ইউনিটে পাঠানো হয়েছে। পুলিশ সদর দফতরের সহকারী পুলিশ মহাপরিদর্শক মোঃ সোহেল রানা স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়েছে, ১ মার্চ থেকে মঙ্গলবার পর্যন্ত বিদেশ থেকে দেশে আসা প্রবাসীরা তাদের পাসপোর্টে উল্লিখিত ঠিকানায় অবস্থান করছেন না। তাদের অনেকেই সরকারের নির্দেশনা অমান্য করে ঘোরাফেরা করছেন। যা দেশের করোনাভাইরাস নিয়ে সৃষ্টি পরিস্থিতিতে তাদের নিজেদের এবং সাধারণ জনগণের জন্য অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ।


এ জন্য ১ মার্চ থেকে হালনাগাদ দেশে আসা প্রবাসীদের তাদের বর্তমান অবস্থান নিকটস্থ থানায় জানাতে অনুরোধ করা হলো। তাদের অবস্থানের পাশাপাশি তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করার জন্য মোবাইল নম্বরও থানায় দিতে অনুরোধ করা হয়েছে। তবে প্রবাসী যদি নিজে থানায় না যান, সেক্ষেত্রে তার কোন আত্মীয়স্বজন বা তার মনোনীত কোন ব্যক্তি আগত প্রবাসী সম্পর্কে থানায় তথ্য দিতে পারবেন।


বিদেশ থেকে আসা যেসব ব্যক্তি এমন নির্দেশনা মানবেন না, তাদের ‘সংক্রামক রোগ (প্রতিরোধ, নিয়ন্ত্রণ ও নির্মূল) আইন-২০১৮’ বাংলাদেশ দ-বিধি এবং প্রযোজ্য অন্যান্য আইনের উপযুক্ত ধারা মোতাবেক আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।


এমনকি প্রয়োজনে তাদের পাসপোর্টের কার্যক্রম স্থগিত ও প্রয়োজনে বাতিল করা হবে।


বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়েছে, করোনাভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে পুলিশের সকল ইউনিট সম্মিলিতভাবে কাজ করছে। সময়ে সময়ে সরকার যে নির্দেশনা দিচ্ছে তা নিষ্ঠার সঙ্গে পালন করা হচ্ছে। সরকারের নির্দেশনা মোতাবেক বিদেশ ফেরত প্রবাসী নাগরিকরা হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন কি না তা নিশ্চিত করতে বাড়ি বাড়ি তল্লাশি চালাচ্ছে পুলিশ। এমন তল্লাশি অভিযান অব্যাহত থাকবে।


পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, করোনাভাইরাসে আক্রান্ত দেশ থেকে সম্প্রতি প্রায় দুই লাখ বাংলাদেশী দেশে ফিরেছেন। তাদের নাম ঠিকানাসহ বিস্তারিত তালিকা তৈরি করেছে পুলিশের বিশেষ শাখা। সেই তালিকা প্রতিটি জেলার পুলিশ সুপার ও সিভিল সার্জনসহ সংশ্লিষ্টদের কাছে পাঠানো হয়েছে। সম্প্রতি সেই তালিকা জেলা প্রশাসনের কাছেও দেয়া হয়েছে। দেশে ফেরা প্রবাসীদের মধ্যে অধিকাংশই টানা ১৪ দিন হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার ভয়ে নিজ বাড়ি ছেড়ে আত্মগোপনে চলে গেছেন। তাদের শনাক্ত করতে সারাদেশে সাঁড়াশি অভিযান শুরু করেছে পুলিশ। দেশে আসা ব্যক্তিদের অবস্থান জানার জন্য কোন কোন ক্ষেত্রে তাদের পরিবারের সদস্যদেরও জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। আত্মগোপনে চলে যাওয়া ওইসব ব্যক্তির অবস্থান জানার পর সংশ্লিষ্ট জেলার স্বাস্থ্য বিভাগের সঙ্গে যোগাযোগ করছে পুলিশ। আবার কোন কোন ক্ষেত্রে পুলিশ তাদের হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার জন্য অনুরোধ করছেন। অনেক সময়ই তাদের তাদের হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকতে বাধ্য করতে হচ্ছে পুলিশকে। করোনাভাইরাসের হাত থেকে নিরাপদ থাকার প্রয়োজনীয় পোশাক না থাকায় পুলিশ বাহিনীতে রীতিমতো আতঙ্ক বিরাজ করছে।

User Comments

  • জাতীয়