২৮ জানুয়ারি ২০২১ ১৫:৬:৫৫
logo
logo banner
HeadLine
বিচ্ছিন্ন ঘটনার মধ্য দিয়ে শেষ হল চসিক'র ভোটগ্রহণ, চলছে গণনা * করোনা ভ্যাকসিন প্রদান কার্যক্রম উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী * চসিক নির্বাচনে ভোট গ্রহণ চলছে, বিক্ষিপ্ত সংঘর্ষে নিহত ২ * এন্টিবায়োটিকের যথেচ্ছা ব্যবহার বন্ধ করতে বৈশ্বিক পদক্ষেপ নেয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রীর ৬ প্রস্তাব * অনলাইন রেজিস্ট্রেশন ছাড়া কেউ টিকা পাবে না * আরও ৫০ লাখ করোনার টিকা ঢাকায় পৌঁছেছে * ২৫ জানুয়ারী : ২৪ ঘন্টায় নতুন শনাক্ত ৬০২, মারা গেছেন ১৮ জন, সুস্থ ৫৬৬ জন * কাউকে জোর করে ভ্যাকসিন দেওয়া হবে না, যে নিতে চায় তাকেই দেওয়া হবে - স্বাস্থ্যমন্ত্রী * দশম ও দ্বাদশ শ্রেণীর নিয়মিত ক্লাস, অন্যান্য শ্রেণী সপ্তাহে একদিন * স্মৃতির পাতায় ঊনসত্তরের অগ্নিঝরা দিনগুলো * ২৩ জানুয়ারী : দেশে নতুন শনাক্ত ৪৩৬, মৃত্যু ২২, সুস্থ ৩৩৮ * টিকাদান শুরু ২৭ জানুয়ারি, প্রথম পাবেন একজন নার্স * সকলের জন্য নিরাপদ বাসস্থানের ব্যবস্থা করাই মুজিববর্ষের লক্ষ্য : প্রধানমন্ত্রী * মিয়ানমার রোহিঙ্গাদের দ্রুত প্রত্যাবাসন শুরু করতে অঙ্গীকারবদ্ধ : মিয়ানমার মন্ত্রী * 'মুজিব' বর্ষ উপলক্ষে ৬৬ হাজার ১৮৯টি ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারের মধ্যে বাড়ি বিতরণ কাল, ফেব্রুয়ারীতে দেয়া হবে আরও ১ লাখ *
     22,2021 Friday at 21:42:48 Share

বিদেশফেরতরা কোথায় আছেন তা থানায় না জানালে ব্যবস্থা

বিদেশফেরতরা কোথায় আছেন তা থানায় না জানালে ব্যবস্থা

চলতি মাসে বিদেশ থেকে দেশে আসা ব্যক্তিদের অবস্থান জানাতে কড়া নির্দেশনা জারি করল পুলিশ সদর দফতর। নির্দেশনা মোতাবেক বিদেশ ফেরতরা যেখানে অবস্থান করছেন, সেখানকার বা আশপাশের কোন থানায় গিয়ে তাদের অবস্থান জানানোর নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। পাশাপাশি তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করার মোবাইল নম্বরও থানায় লিপিবদ্ধ করার কথা বলা হয়েছে। তবে বিদেশ ফেরত ব্যক্তির পক্ষে অন্য কেউ বা তার মনোনীত কোন ব্যক্তির বিদেশ থেকে আসার ব্যক্তি সম্পর্কে থানায় তথ্য দিতে পারবেন। এমন নির্দেশনা না মানলে বিদেশ থেকে আসা ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার ঘোষণা জারি করা হয়েছে। পাশাপাশি তাদের পাসপোর্টের কার্যক্রম স্থগিত ও প্রয়োজনে বাতিল করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে পুলিশ সদর দফতর।

মঙ্গলবার পুলিশ সদর দফতরের তরফ থেকে এমন নির্দেশনা জারি করা হয়েছে। জারিকৃত নির্দেশনা পুলিশের প্রতিটি বিভাগ ও ইউনিটে পাঠানো হয়েছে। পুলিশ সদর দফতরের সহকারী পুলিশ মহাপরিদর্শক মোঃ সোহেল রানা স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়েছে, ১ মার্চ থেকে মঙ্গলবার পর্যন্ত বিদেশ থেকে দেশে আসা প্রবাসীরা তাদের পাসপোর্টে উল্লিখিত ঠিকানায় অবস্থান করছেন না। তাদের অনেকেই সরকারের নির্দেশনা অমান্য করে ঘোরাফেরা করছেন। যা দেশের করোনাভাইরাস নিয়ে সৃষ্টি পরিস্থিতিতে তাদের নিজেদের এবং সাধারণ জনগণের জন্য অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ।

এ জন্য ১ মার্চ থেকে হালনাগাদ দেশে আসা প্রবাসীদের তাদের বর্তমান অবস্থান নিকটস্থ থানায় জানাতে অনুরোধ করা হলো। তাদের অবস্থানের পাশাপাশি তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করার জন্য মোবাইল নম্বরও থানায় দিতে অনুরোধ করা হয়েছে। তবে প্রবাসী যদি নিজে থানায় না যান, সেক্ষেত্রে তার কোন আত্মীয়স্বজন বা তার মনোনীত কোন ব্যক্তি আগত প্রবাসী সম্পর্কে থানায় তথ্য দিতে পারবেন।

বিদেশ থেকে আসা যেসব ব্যক্তি এমন নির্দেশনা মানবেন না, তাদের ‘সংক্রামক রোগ (প্রতিরোধ, নিয়ন্ত্রণ ও নির্মূল) আইন-২০১৮’ বাংলাদেশ দ-বিধি এবং প্রযোজ্য অন্যান্য আইনের উপযুক্ত ধারা মোতাবেক আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এমনকি প্রয়োজনে তাদের পাসপোর্টের কার্যক্রম স্থগিত ও প্রয়োজনে বাতিল করা হবে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়েছে, করোনাভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে পুলিশের সকল ইউনিট সম্মিলিতভাবে কাজ করছে। সময়ে সময়ে সরকার যে নির্দেশনা দিচ্ছে তা নিষ্ঠার সঙ্গে পালন করা হচ্ছে। সরকারের নির্দেশনা মোতাবেক বিদেশ ফেরত প্রবাসী নাগরিকরা হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন কি না তা নিশ্চিত করতে বাড়ি বাড়ি তল্লাশি চালাচ্ছে পুলিশ। এমন তল্লাশি অভিযান অব্যাহত থাকবে।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, করোনাভাইরাসে আক্রান্ত দেশ থেকে সম্প্রতি প্রায় দুই লাখ বাংলাদেশী দেশে ফিরেছেন। তাদের নাম ঠিকানাসহ বিস্তারিত তালিকা তৈরি করেছে পুলিশের বিশেষ শাখা। সেই তালিকা প্রতিটি জেলার পুলিশ সুপার ও সিভিল সার্জনসহ সংশ্লিষ্টদের কাছে পাঠানো হয়েছে। সম্প্রতি সেই তালিকা জেলা প্রশাসনের কাছেও দেয়া হয়েছে। দেশে ফেরা প্রবাসীদের মধ্যে অধিকাংশই টানা ১৪ দিন হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার ভয়ে নিজ বাড়ি ছেড়ে আত্মগোপনে চলে গেছেন। তাদের শনাক্ত করতে সারাদেশে সাঁড়াশি অভিযান শুরু করেছে পুলিশ। দেশে আসা ব্যক্তিদের অবস্থান জানার জন্য কোন কোন ক্ষেত্রে তাদের পরিবারের সদস্যদেরও জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। আত্মগোপনে চলে যাওয়া ওইসব ব্যক্তির অবস্থান জানার পর সংশ্লিষ্ট জেলার স্বাস্থ্য বিভাগের সঙ্গে যোগাযোগ করছে পুলিশ। আবার কোন কোন ক্ষেত্রে পুলিশ তাদের হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার জন্য অনুরোধ করছেন। অনেক সময়ই তাদের তাদের হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকতে বাধ্য করতে হচ্ছে পুলিশকে। করোনাভাইরাসের হাত থেকে নিরাপদ থাকার প্রয়োজনীয় পোশাক না থাকায় পুলিশ বাহিনীতে রীতিমতো আতঙ্ক বিরাজ করছে।

User Comments

  • জাতীয়