১৫ মে ২০২১ ১৩:৪২:৫৬
logo
logo banner
HeadLine
১৪ মে, ২০২১ : দেশে নতুন আক্রান্ত ৮৪৮ জন, মারা গেছেন ২৬ জন, সুস্থ হয়েছেন ৮৫২ জন * যথাযোগ্য মর্যাদায় সারাদেশে পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপন * সবাইকে বর্তমান অবস্থানে থেকেই স্বাস্থ্য নির্দেশিকা মেনে ঈদ উদযাপনের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর * ১৩ মে, ২০২১ : দেশে ৯.৫৮ হারে নতুন শনাক্ত ১২৯০, মৃত্যু ৩১, সুস্থ ১৩৭০ জন * সৌদি আরবসহ মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোতে উদযাপিত হচ্ছে ঈদুল ফিতর * দেশের আকাশে কোথাও চাঁদ দেখা যায়নি, ঈদ শুক্রবার * ১২ মে, ২০২১ : ৭.৪৫ হারে দেশে নতুন শনাক্ত ১১৪০, মৃত ৪০, সুস্থ ২৯২৮ * মিতু হত্যায় বাবুল আকতারের ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর * শিমুলিয়া – বাংলাবাজার ফেরিতে গাদা্গাদি ও ভীড়ের চাপে ৫ জনের মৃত্যু * আজ চাঁদ দেখা গেলে কাল ঈদ, দেখা না গেলে শুক্রবার * আল-আকসা মসজিদে হামলার নিন্দা প্রধানমন্ত্রীর * দেশে করোনা টিকার দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছেন প্রায় ৩৬ লাখ মানুষ * ১১ মে ২০২১ : ৮.৬৭ হারে নতুন শনাক্ত ১২৩০, মৃত ৩৩, সুস্থ ৩০৪৪ জন * করোনার ভয়াবহ সময়ে ঈদ উপলক্ষে ঘরমুখো মানুষ সুইসাইড সিদ্ধান্ত নিচ্ছে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী * ১০ মে ২০২১ : ৮.৯৯ হারে নতুন শনাক্ত ১৫১৪, মৃত ৩৮, সুস্থ ২১১৫ জন *
     10,2021 Monday at 20:25:05 Share

কালো টাকা সাদা করার সুযোগ বেড়েছে আরও

কালো টাকা সাদা করার সুযোগ বেড়েছে আরও

বাজেটে অপ্রদর্শিত অর্থ বিনিয়োগের সুযোগ এবার আরো অবারিত করার প্রস্তাব দিয়েছেন অর্থমন্ত্রী। মাত্র ১০ শতাংশ কর দিয়ে অর্থনৈতিক অঞ্চল ও হাইটেক পার্কে অবস্থিত শিল্পে অপ্রদর্শিত অর্থ বিনিয়োগ করা যাবে। এর আগে আবাসন খাতে নির্দিষ্ট পরিমাণ কর দিয়ে অপ্রদর্শিত অর্থ বিনিয়োগের সুযোগ ছিল।

এবার জমি ক্রয়ের ক্ষেত্রেও এ সুযোগ দেওয়া হচ্ছে। আর সব খাতেই প্রযোজ্য হারে কর ও এর ওপর ১০ শতাংশ জরিমানা দিয়ে অপ্রদর্শিত অর্থ বৈধ করার সুযোগ ছিল। তবে এবার অর্থনৈতিক অঞ্চল ও হাইটেক পার্কে অপ্রদর্শিত অর্থের মালিকরা অপেক্ষাকৃত কম কর পরিশোধ করেই কালো টাকা বৈধ করতে পারবেন। অথচ বর্তমানে একজন নিয়মিত করদাতাকে সর্বোচ্চ ৩০ শতাংশ কর পরিশোধ করতে হয়।

মূলত নির্দিষ্ট কিছু খাতে বিনিয়োগ বাড়াতে সরকার অপ্রদর্শিত অর্থ বিনিয়োগের এ সুযোগ দিয়েছে। তবে এর ফলে নিয়মিত কর পরিশোধকারীদের চাইতে অপ্রদর্শিত অর্থের মালিকরা কম কর দিয়ে টাকা বৈধ করার সুযোগ পাওয়ায় নিয়মিত করদাতারা নিরুত্সাহিত হতে পারেন বলে মনে করছেন অর্থনীতিবিদরা। অন্যদিকে অপ্রদর্শিত অর্থের মালিকরা আরো উত্সাহিত হতে পারেন।

আবাসন খাতে অর্থমন্ত্রীর প্রস্তাব অনুযায়ী বিভিন্ন এলাকাভিত্তিক অপেক্ষাকৃত কম টাকা পরিশোধ করে অপ্রদর্শিত অর্থ বৈধ করা যাবে। প্রস্তাব অনুযায়ী গুলশান, বনানী, বারিধারা, মতিঝিল বাণিজ্যিক এলাকায় ও এগুলোর দুইশ বর্গমিটারের মধ্যে অ্যাপার্টমেন্ট বা ভবন ক্রয়ে প্রতি বর্গমিটারে বিদ্যমান কর সাত হাজার ও পাঁচ হাজার টাকার স্থলে পাঁচ হাজার ও চার হাজার টাকা হচ্ছে। এছাড়া এসব এলাকায় প্রতি বর্গমিটার জমিতে ১৫ হাজার টাকা কর দিয়ে বৈধ করা যাবে।

একইভাবে রাজধানীর অন্যান্য এলাকা, সিটি করপোরেশন ও পৌরসভায় অ্যাপার্টমেন্ট ক্রয়ে বিদ্যমান করের পরিমাণ কমছে। ওইসব এলাকায় জমি ক্রয়ের ক্ষেত্রেও নির্দিষ্ট পরিমাণ কর দিয়ে টাকা বৈধ করা যাবে।

User Comments

  • ব্যবসা ওঅর্থনীতি